ইন্টারনেট মার্কেটিং কি এবং এর কৌশলসমুহ

0
758
ইন্টারনেট মার্কেটিং কি এবং এর কৌশলসমুহ
Rate this post

ইন্টারনেট মার্কেটিং কি?
ইন্টারনেট মার্কেটিং এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে খুব সহজেই কোন বিষয়বস্তুকে (পণ্য) মানুষের দারপ্রান্তে পৌঁছানো সম্ভব। এর জন্য সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং সম্পর্কে অবশ্যই পরিমিত জ্ঞান থাকা বাঞ্ছনীয়। মার্কেটিং/বাজারজাতকরণ হচ্ছে পণ্য-সেবা গ্রাহক পর্যন্ত পৌছানোর জন্য যেসব কার্যাবলী সম্পাদন করা দরকার সেগুলো করা।

যেখানে একসময় PTC (pay to click) রাজত্ব করত সেখানে ফেসবুক, টুইটার, গুগল প্লাস, ইউটিউব এখন সেই রাজ্যের রাজা। আমি এই সকল সাইটকে ধ্রুবক ধরলাম। মনে করলাম আপনার একটি প্রতিষ্ঠান আছে, এখন আপনি আপনার ক্লায়েন্টদের সংস্পর্শে আসতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই এই সকল সাইটে নিজের অবস্থান উল্লেখ করতে হবে, তা ফেইসবুকে পেজ খুলে হোক কিংবা ইউটিউবে ভিডিও এড দিয়ে হোক। আমরা এই পন্থা Grameen.market এর ক্ষেত্রে দেখি। এরকম আরও অনেক সাইট বর্তমানে ব্র্যান্ডিং এ পৌছে নিজের অবস্থান শক্ত করে নিয়েছে। আপনি শুধু পেজ খুলে বসে থাকলে হবে না, সেটার লাইক বাড়ানোর জন্য যৎসামান্য টাকা বিনিয়োগ করতে হবে । আপনি যদি পেজ এডমিন থেকে লাইক কিনেন তাহলে আপনার ব্যবসা ব্র্যান্ডিং এর বদলে ড্যাম হবে, কারন যারা লাইক বেচে তাদের দেওয়া ইউজাররা ফেক আইডি ব্যবহার করে এবং মূলত লাইক দেওয়া তাদের কাজ।

বর্তমানে কোন ব্র্যান্ড বা পন্য কে সকলের নিকট উপস্থাপন করার জন্য স্যোসাল মিডিয়া মার্কেটিং এর বিকল্প নেই। শুধু উপস্থাপন করলেই হবেনা বিষয়টির প্রতি সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করাতে হবে। যেন তারা বিষয়টির প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠে এবং নিজে জানার পর অপর একজনকে জানায়। আর এই দৃষ্টি আকর্ষণ করানোর পদ্ধতিকে ইন্টারনেট মার্কেটিং বলা হয়।

ইন্টারনেট মার্কেটিং-এর অসংখ্যা শাখা-প্রশাখা রয়েছে, যেমন-
■ ওয়েবসাইট মার্কেটিং
■ সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটিং
■ সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং
■ ইমেইল মার্কেটিং
■ ব্যানার মার্কেটিং
■ মোবাইল মার্কেটিং
■ ব্লগ মার্কেটিং
■ অনলাইন প্রেস রিলিজ(সংবাদ বিজ্ঞপ্তি) মার্কেটিং
■ ফোরাম এবং ডিস্‌কাশান মার্কেটিং

internet-3

প্রচারেই প্রসার। তাই যে কোন ব্যবসাকে লাভের উচ্চ শিখরে অধিষ্টিত করার জন্য প্রচারের বিকল্প নেই।
আত্মবিশ্বাসী উদ্যোক্তা (যে ব্যবসার উন্নতিতে নেতৃত্ব দেয়), এবং বাবসায়ী (যারা কোন রকম টিকে আছে)। এ দুয়ের মধ্যে পার্থক্য কি? প্রত্যেক সফলতার পেছনে পরিষ্কার মার্কেটিং কৌশল আছে যার মাধ্যমে ব্যবসাটা করা যায় অনেক কার্যকর ভাবে।

দুর্ভাগ্যজনকভাবে অনেক ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসার উন্নতির জন্য কিছু সময় ব্যয় করেনা। তারা জানেনাঃ দৈনন্দিন মার্কেটিং, ওয়েবসাইট বানানো, ই-মেইল পাঠানো, টুইট করা, অ্যাড দেয়া, ল্যান্ডিং পেইজ বানানো, ব্লগিং করা এবং আরও অনেক কিছু। কৌশলটা একটা সিদ্ধান্ত যা আপনি করবেন, আর এটা দিয়ে অনেক ভাল ফল পাবেন। কৌশলটা হচ্ছে সচেতনতার মূল ভিত্তি, লভ্যাংশ, বিক্রয় বৃদ্ধি, ক্রেতার সাথে অ্যানগেজ থাকা। মার্কেটিং কৌশলটা কোম্পানীর সংস্কৃতি, পণ্য, সার্ভিস এবং দামের প্রদর্শক। এখানে অনেক কিছু ছাড় দিতে হয় সকল কৌশল প্রদর্শনে।

ইন্টারনেট মার্কেটিং এর ৫টি কৌশলঃ

    ১। টার্গেটেড গ্রাহকঃ
    মার্কেটিং এর প্রধান কৌশল হল টার্গেটেড কাস্টমার নিরধারন করা। আপনি কি পরিবেশন করেন তা সবসময় পরিষ্কার ভাবে উত্তর দিতে হবে। যে কোন কৌশল মানে আপনাকে আপনার সম্ভাব্য ক্রেতাকে “না” বলতে হবে, আপনার নিচু মানের কৌশলের কারণে। এটা করতে অনেক সময় লাগবে। কিন্তু এছাড়া কার্যকর মার্কেটিংও করতে পারবেন না।
    একটি ভাল লক্ষ্যের দিকে মননিবেশ করা প্রথম দিকে অস্বস্তিকর মনেহতে পারে। কিন্তু এটাতে লেগে থাকুন, অনুসরণ করুন। আমার এক হিসাব রক্ষক বন্ধু ২ বছর ধরে পরিবর্তন এনেছে, তার ব্যবসাকে ৩গুন করেছে। সার্ভিস কমিয়ে নির্দিষ্ট করে। যদি আপনি মার্কেটিং এ সময় এবং অর্থ ব্যয় করেন কিন্তু ফলাফল মানে, ভাল সেল পান না। তাহলে সমস্যাটা হল আপনি আপনার সার্ভিস কমান নাই। যার ফলে ভাল ফলাফল পাচ্ছেন না। ব্যবসার ধরণটা আপনাকে ছোট করে নির্ধারণ করতে হবে। এভাবে আপানি আপনার সার্ভিসের উপর ভালভাবে ফোকাস করতে পারবেন। এভাবে ভাল ফল পাওয়া যাবে। এমনকি আপনার সকল ব্যবসায়ও এটার ভাল ফল পাবেন।

    ২। ব্যবসার ধরণ/ক্যাটাগরিঃ
    ক্যাটাগরি হচ্ছে ব্যবসার ধরণ বা বিবরণ যা আপনি কি করেন। কয়েকটি শব্দ বা বাক্য যা আপনার পুরো ব্যবসার বর্ণনা করবে।
    অনেক ব্যবসায়িক তার কোম্পানির বর্ণনাটা সহজতর করতে পারে না। যার কারণে আপনি কি করেন মানুষ বুজতে পারে না। এটা মার্কেটিং প্রবৃদ্ধির অন্তরায়। এটা সাধারণ নিয়মঃ যদি কেউ পরিষ্কার ভাবে বুজতে না পারে আপনার ক্যাটাগরি, তাহলে ১ মাস না কক্ষনই পরিষ্কার হতে পারবে না।
    ক্যাটাগরির সঠিক বর্ণনা মার্কেটিং এ সাহায্য করবে এবং সেল বৃদ্ধিতে প্রভাব পরবে। চিন্তা করুন কি হতে পারে আপনার ক্যাটাগরি । একটি প্রধান ক্যাটাগরি বাহির করুন। প্রধান ক্যাটাগরি নির্বাচন করতে পারেন নাই, তাহলে ছোট করে ফেলুন ক্যাটাগরি লিস্ট অথবা টার্গেট মার্কেট ফোকাস করুন প্রধান একটা বাহির করা পর্যন্ত। একটি লেজার নির্দেশ দিয়ে ইস্পাত ভেদ করা যায়। কিন্তু লক্ষ্য স্থির না থাকলে কোন প্রভাবই পরবে না। লেজারটা মনে করেন আপনার ফোকাস।

    internet-2

    ৩। অন্যান্য সুবিধাঃ
    অন্যান্য সুবিধা অবশ্যই হাইলাইট করতে হবে। ১টা অথবা ২টা এর বেশী না। এর মাধ্যমে টার্গেটেড কাস্টমার কি চায় তা বুঝানো। Grameen365 এ আমরা কাস্টমারদেরকে যারা বিক্রয় বৃদ্ধি এবং সময় বাঁচাতে চায় তাদেরকে শত বেনিফিট অফার না করে মাত্র ৩টা প্রধান বেনিফিট অফার করি। এবং বুঝিয়ে দেই যে এটা দিয়ে আরও অনেক কিছু করা হয়। এটা অনেক ভাল এবং এই মার্কেটিং অনেক কাজের।

    ৪। আসল প্রতিদ্বন্দ্বীঃ
    যখন কেউ কোন সমাধান কিনতে চায় তখন সে খুব সহজেই আপনার প্রতিদ্বন্দ্বীর সাথে আপনার পণ্যের তুলনা করে। তবে অনেক উদ্যোক্তাই জানেনা যে তাদের প্রকৃত প্রতিদ্বন্দ্বী কারা এবং তাদের ম্যাসেজ ফোকাস করে না। ক্রেতাকে পরিষ্কার বর্ণনা/পার্থক্য উল্লেখ করে না। আপনার নিজের মনে অবশ্যই পরিষ্কার থাকতে হবে যে কে আপনার প্রতিদ্বন্দ্বী। যদি আপনি একজন অ্যাকাউনটেনট হন তাহলেঃ নিজের শহরে কি অন্য আকাউনটেনট আছে? জাতীয় কর নিরীক্ষক চেইন? DIY tax software? অন্যান্য financial planner? প্রতিটি কাম্পিটিটর ভিন্ন ভিন্ন ভাবে তুলনা হবে। সুতরাং আপনার লিস্ট আরো ছোট করতে হবে। ১ টা বা ২ টা।

    ৫। কিভাবে আপনি অন্যদের থেকে আলাদা?
    যখন আপনি কাম্পিটিটর নির্ধারণ করে ফেলবেন তখন একটা লিস্ট করবেন। আপনি যা করেন, অন্যদের থেকে ভাল। তারপর লিস্ট টা রেংক করবেন যা টার্গেটেড কাস্টমারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, প্রথম থেকে ১ টা অথবা ২ টা নিয়ে homepage এ শো করবেন ।
    বেশী কমপ্লিকেটিং করবেন না। ক্রেতা সিদ্ধান্তের জন্য ১ টা অথবা ২ টা ব্যাপার চায়। এটা কি চিপার? আপনার কি দ্রুত ডেলিভারি আছে? ভাল সার্ভিস? আপনি একমাত্র যে একচেটিয়া ভাবে সার্ভিস দিচ্ছেন?

ইন্টারনেট এখন আর নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় । এটা বিস্তারিত হয়ে গেছে। সব ক্ষেত্রে অনলাইনের সাহায্য নিচ্ছে মানুষ। ঠিক তেমনি মার্কেটিং এর ক্ষেত্রেও অনলাইনের গুরুত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন মানুষ টিভি এড বা প্রিন্ট পেপারে এডভারটাইজ এর চেয়ে অনলাইন মিডিয়াতে এড দেওয়াকে বেশি পছন্দ করে। অনলাইনে মানুষ অনেক ধরনের মার্কেটিং করতে পারে।

Shaila Shahanaj

Shaila Shahanaj

Shaila Shahanaj lives with deep passion of in psychology. She have expertise in behavior and mind, embracing all aspects of conscious and unconscious experience as well as thought.
Beside she loves music and read lots of books.
Shaila Shahanaj

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY