ইন্টারভিউর জন্য সেরা কিছু প্রশ্ন উত্তর

0
449
ইন্টারভিউর জন্য সেরা কিছু প্রশ্ন উত্তর
5 (100%) 4 votes

ইন্টারভিউ। কম বেশি সবার মনেই ভীতির সৃষ্টি করে। কারন এই ইন্টারভিউর ২ মিনিট ই একজন মানুষের ক্যারিয়ার নির্ধারন করে। এই ইন্টারভিউতে অনেক সাহসী লোক ও অনেক সময় ঘাবড়ে যান। আর অনেক সময় তো একের অধিক ইন্টারভিউয়ার থাকে। একেক জনের একেক প্রশ্নের উত্তরের ভার অনেকেই নিয়ে উঠতে পারে না। অনেক ভালো রেজাল্টের অধিকারীরা ও আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন। আর এখানেই হয় ভুল। কারন ইন্টারভিউ তে প্রথমতই ইন্টারভিউরার রা দেখবে আপনার আত্মবিশ্বাস। তারা আপনাকে বিপাকে ফেলতে চাইবেই এটা দেখার জন্য যে আপনি ঘুরে দাড়াতে পারবেন কিনা। তারা আপনাকে অতি সাধারণ প্রশ্ন গুলোই করবে আর আপনাকে সেগুলোর উত্তর দিতে হবে বুদ্ধিমত্তার সাথে। তবে মনে রাখবেন আজকাল বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠান গুলোতেই ইংলিশে ইন্টারভিউ নিয়ে থাকে। তাই সেভাবেই পস্তুত হন। আসুন জেনে নেই কিছু সাধারণ প্রশ্ন উত্তর যা ইন্টারভিউয়ার রা বেশির ভাগ সময় ই করে থাকে-

সর্বপ্রথম কমন একটি প্রশ্ন হল ‘নিজের সম্পর্কে কিছু বলুন’।( Tell us something about yourself)

Tell Me About Yourself

কি? প্রশ্ন টি খুব সোজা তাইনা। নিজের সম্পর্কে বলা তো কোন ব্যপার ই না। কিন্তু আপনি জানেন কি এই প্রশ্ন টির মাধ্যমেই অনেকেই বুঝে নেয় যে আপনি প্রতিষ্ঠানের হয়ে কথা বলতে পারবেন কিনা। তাই এই প্রশ্ন টি খুব গুরুত্বপূর্ন। আর এই প্রশ্ন টি তেই বেশির ভাগ মানুষ ভুল করে। প্রার্থীরা বুঝে উঠে না যে, তারা ব্যাক্তিগত ব্যাপার নিয়েই বলবে নাকি প্রফেশনাল ও। আর কোত্থেকেই বা শুরু করবে বলা। বা পরিবার নিয়ে কিছু বলবে কিনা। কিন্তু সাবধান, মনে রাখবেন ইন্টারভিউয়ারের আপনার পরিবারের সম্বন্ধে জানার বিন্দু মাত্র ও আগ্রহ নেই। তাহলে জেনে নিন কি করবেন আর কি করবেন না-

যা করবেন

• আপনার উত্তরটি যথাসম্ভব সংক্ষিপ্ত এবং নির্দিষ্ট পয়েন্টে রাখবেন।
• আপনার আগের কাজ সম্পর্কে বলবেন। অর্থাৎ আপনি সেখান থেকে কি কি অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন সেগুলো বলবেন।
• ইন্টারভিউ তে যাওয়ার আগে কোম্পানি আপনার মধ্যে কি কি গুন চাচ্ছে সেগুলো সম্পর্কে পরিষ্কার হয়ে নেবেন এবং আপনার দক্ষতা গুলো কে সেগুলোর সাথে অ্যাডজাস্ট করে বলার চেষ্টা করবেন। কিন্তু খেয়াল রাখবেন তা যেন অতিরিক্ত না হয় এবং কোন মিথ্যা কথা বলবেন না।

যা করবেন না

• আপনার ব্যাক্তিগত কোন ঘটনা বলবেন না।
• পরিবার সম্পর্কে বলবেন না। তবে হ্যা ইন্টারভিউয়ার নিজ থেকে জিজ্ঞাসা করে কেবল তখন ই বলবেন।

আমরা আপনাকে কেন নেব? (why Should i hire u?)

why should we hire u

এই প্রশ্নের মাধ্যমে ইন্টারভিউয়ার জেনে নেয় যে আপনি নিজের প্রতি কতটুক আত্মবিশ্বাসী। এক্ষেত্রে আপনার বর্তমান কাজের অভিজ্ঞতা, কোন সমস্যা সমাধান করার অভিজ্ঞতা, আপনি অনেক পরিশ্রমী ও দক্ষ ইত্যাদি বিষয়গুলো উল্লেখ করতে পারেন। এছাড়া যদি আপনি fresher হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রজেক্ট করে থাকলে সেগুলো বলবেন।

যা করবেন

• আপনার সাক্সেস স্টোরি বলবেন।
• আপনার ইউনিক পয়েন্ট তুলে ধরুন।

যা করবেন না

• কখনই হতাশ হবেন না যদি ইন্টারভিউয়ার বলে যে তাদের অনেক কোয়ালিফাইড কর্মচারী আছে এবং আপনি তাদের তুলনায় কি করতে পারবেন । কারন আমি আগেই বলেছি তারা আপনার আত্মবিশ্বাস দেখবে।

আপনার সবচেয়ে বড় শক্তি এবং দূর্বলতা কি? (What are your biggest Strength and Weakness?)

Strengths

আপনি কতটুক সৎ তা দেখার জন্য ইন্টারভিউয়ার এই প্রশ্ন টি করে। তবে এই প্রশ্নের উত্তর আপনাকে আগেই ভেবে রাখতে হবে। যেন প্রশ্নটার উত্তরও খুব সহজেই আপনি বলতে পারেন। নিঃসন্দেহে আপনার সেই শক্তিগুলো আছে। কিন্তু ইন্টারভিউ বোর্ড এমন একটি জায়গা যেখানে আপনি এগুলো নিয়ে ভাবার সময় পাবেন না। আর আগে থেকে ভেবে না রাখলে আপনি শক্তি ও দুর্বলতা গুলো নিয়ে ভাবার পর কোন টি ইন্টারভিউয়ার কে বলবেন সেটা নিয়েই কনফিউসড হয়ে যাবেন। তাই আগেই এই প্রশ্নের উত্তরের পস্তুতি নিন। যেমন- আপনার শক্তি হতে পারে Inteligence (বুদ্ধিমত্তা), Honesty (সততা), সকলের সঙ্গে মেশার ক্ষমতা, সেন্স অফ হিউমার, গুড কমিউনিকেশন স্কিল, সিরিয়াসনেস প্রভৃতি। তবে হ্যা অবশ্যই সত্যি কথা টি বলবেন। কারন ধরেন অনেক ইন্টারভিউয়ার আপনার সততা পরিক্ষার জন্য বলে ফেলল যে আপনি যে সৎ তার একটা উদাহরন দিন। তখন যদি আপনি বলতে না পারেন তাহলে চাকরি তো পাবেন ই না উল্টো তাদের কাছে মিথ্যাবাদী প্রমানিত হবেন। আবার দূর্বলতার ক্ষেত্রেও এমন কিছু দূর্বল দিক বলে ফেলবেন না যেটা আপনার চাকরির জন্য দরকার। যেমন ধরেন- আপনার চাকরি টি কাস্টমার কেয়ার এর। আর আপনি দূর্বলতা বললেন যে আপনার কমিউনিকেশন পাওয়ার ভালো না। সেক্ষেত্রে ফলাফল হল চাকরি হাতছাড়া। তাই ভেবে চিন্তে উত্তর দিবেন।

যা করবেন

• আপনার সম্পর্কে বলার এটি একটি সুযোগ। এটি হাতছাড়া করা যাবে না।
• চাকরির চাওয়ার সাথে মিল রেখে শক্তি ও দূর্বলতা গুলো বলবেন।
• উত্তরের মাধ্যমে ইন্টারভিউয়ার কে বুঝাবেন যে আপনি আপনার দূর্বলতা সম্পর্কে অবগত এবং আপনি সেটা ওভারকাম করছেন।

যা করবেন না

• দূর্বলতা বলার ক্ষেত্রে কখনোই নিজ থেকে বর্ননা দিতে যাবেন না।
• বেশি স্মার্টনেস দেখাতে গিয়ে কখনোই বলবেনা না যে আপনি পারফেক্ট (I’m a perfectionist).

আপনি কেন আমাদের সাথে কাজ করতে চান? (Why you want to work with us?)

why work for us

আরো তো অনেক কোম্পনী আছে। তাহলে কেন আপনি আমাদের সাথে কাজ করতে চাচ্ছেন? এই প্রশ্ন টি তারা করে থাকে এটা জানার জন্য যে, আপনি যে তাদের কোম্পনী তে কাজ করতে চাচ্ছেন তার পিছে কি মোটিভেশন কাজ করে আপনার মধ্যে। তবে কখনোই এমন উত্তর দিবেন না যেটায় মনে হবে যে আপনার চাকরিটি দরকার। এমন উত্তর দিবেন যেন মনে হয় যে আপনি ই তাদের এই পোস্ট এর জন্য পারফেক্ট।

যা করবেন

• অবশ্যই কোম্পানী সম্পর্কে পূর্ন ধারনা নিয়ে নিবেন।
• কোম্পানীর কি কি আপনার পছন্দ বিস্তারিত বলবেন।

যা করবেন না

• কখনোই বলবেন না যে আপনার টাকার দরকার বা আপনি বেকার তাই কাজ করতে চান।

পুরনো চাকরি টি কেন ছেড়েছেন? (Why did you leave your previous job?)

why leave previous job

এটি একটি চ্যেলেঞ্জিং প্রশ্ন যেটায় অনেকেই নার্ভাস হয়ে যায়। তারা আসলে জানতে চায় যে এমন কি কারন আছে যার কারনে আপনি চাকরি ছেড়ে নতুন চাকরির সন্ধান করছেন। কারন হয়তো এক সময় আপনি তাদের এই চাকরিটিও ছাড়তে পারেন এই এক ই কারনে। তাই তারা এটা আগে থেকেই জানতে চায়।

যা করবেন

• বলতে পারেন নতুন সুযোগ এর জন্য।
• অথবা বলতে পারেন ভালো একটা কোম্পানী তে নিজের ক্যারিয়ার গড়ার জন্য।

যা করবেন না

• ভুলেও আগের কোম্পানী বা বসের নামে খারাপ কিছু বলতে যাবেন না। তাহলে ইন্টারভিউয়ার ভাববে যখন আপনি এখান থেকেও অন্য কোম্পনীতে ইন্টারভিউ দিতে যাবেন তখন তাদের কথা ও এরকম ই খারাপ কিছু বলবেন।
• যদি বর্তমান কম্পানী থেকে ও আপনার চাকরি থেকে না করে দেয়া হয় সেটা লুকাবেন না।

পাঁচ বছর পরে নিজেকে আপনি কোন জায়গায় দেখতে চান? (Where Do You See Yourself in 5 years?)

Where Do You See Yourself in 5 years

এই প্রশ্নের উত্তরের মাধ্যমে ইন্টারভিউয়ার ধারনা নিবে যে আপনি আদৌ তাদের কোম্পানীতে বেশি দিন কাজ করতে চান কিনা। একটা কোম্পানীর জন্য ইন্টারভিউ নেয়া যেমন কষ্ট ও সময়ের ব্যাপার তেমনি আপনার জন্য ও। তাই তারা চায় একটা লং টাইমের জন্য কর্মী নিয়োগ দিতে। আর এজন্যই আপনাকে প্রশ্ন টি করা।

যা করতে হবে

• বলতে পারেন যে, আপনি নিজেকে একজন সফল কর্মী হিসেবে দেখতে চান।
• বড় একটি পোস্ট এর নাম নিয়ে বলতে পারেন যে আপনি ওই পোস্ট এ যেতে চান।
• অবশ্যই পোস্ট টি এই কোম্পানীর নাম নিয়ে বলবেন।

যা করবেন না

• কখনোই অন্য কোন কোম্পানীর নাম নিয়ে বলবেন না যে আপনি ঐ কোম্পানীতে যেতে চান।

আপনি কেমন বেতন কাঠামো আশা করছেন? (What is your salary requirement?)

salary expectations

এক্ষেত্রে কোম্পানী আপনার চাওয়া সম্পর্কে জানতে চাচ্ছে। এজন্য পস্তুত থাকবেন।

যা করবেন

• বলতে পারেন যে এই কোম্পানীর বেতন কাঠামো আপনি জানেন।
• এছাড়া সরাসরি ও বলতে হতে পারে। তাই আগে থেকে নির্ধারন করে রাখুন।

যা করবেন না

• পোস্ট অনুযায়ী বেতনের প্রত্যাশা বলবেন। অনেক উচ্চ বেতন স্কেল বলবেন না।

আমাদের সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থাকলে বলুন? (Do you have any Questions for us?)

Questions

এ প্রশ্ন টি প্রায় সব ইন্টারভিউয়ার ই ইন্টাভিউর শেষ দিকে করেন। কখনোই বলবেন না আপনার কিছু বলার নেই তাহলে মনে হবে আপনি এই কাজের ব্যাপারে আগ্রহী না। আপনি জানেন কি প্রায় ৭৫% চাকরি প্রার্থী বলেন যে তাদের কোন প্রশ্ন নেই। আপনি যেখানে কাজ করবেন অবশ্যই আপনার কিছু প্রশ্ন থাকা উচিত। আর প্রশ্ন করলে মনে হবে আপনি এই প্রতিষ্ঠানের ব্যাপারে বেশ আগ্রহী। এক্ষেত্রে বুদ্ধিমত্তার সাথে কয়েকটি প্রশ্ন করতে পারেন। যেমন হতে পারে-

• প্রতিষ্ঠানের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?
• প্রথম মাসে কাজের ক্ষেত্রে আমার কাছে কী প্রত্যাশা করেন?
• আমাদের টিমটি কয়জনের হবে? বা আমাকে কয়জনের সাথে কাজ করতে হবে?
• প্রশ্ন করতে পারেন যে আপনার মধ্যে কি এমন কিছু আছে যার কারনে আপনাকে তারা চাকরি টি না ও দিতে পারে?

পরিশেষে, কখনোই হার মানবেন না। সর্বদা সব কিছুর জন্য পস্তুত থাকুন। আমার দেয়া প্রশ্ন গুলো খুব ই কমন এবং বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানে এই প্রশ্ন গুলো করে থাকে। আপনি কাজের এবং নিজের প্রতি কতটুক আত্মবিশ্বাসী তা জানার জন্যেই মূলত এই প্রশ্ন গুলো করা। তাই আত্মবিশ্বাসের কমতি হলে হবে না।

সর্বশেষে, ব্যাক্তিগত জীবন হোক বা পেশাগত সৎ থাকুন। ভালো থাকুন।

Jannatul Jarin

Jannatul Jarin

Jannatul Jarin is very friendly person and she completed her B.B.A from Daffodil International University in Marketing Major. Besides She was very conscious about fashion trend and beauty. She likes to smile herself and make laugh to others. She also write about online marketing. She is Self-Dependent, hard working and focused.
Jannatul Jarin

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY