কিভাবে আপনি একজন বিবাহ পরিকল্পনাকারী হতে পারবেন?

0
244
কিভাবে আপনি একজন বিবাহ পরিকল্পনাকারী হতে পারবেন?
Rate this post

আপনি কি পার্টি ও ইভেন্ট উপভোগ করেন এবং আপনি কি চান আপনার পেশাদারী জীবন আরও নমনীয় হোক এবং আপনার প্রফেশনাল জীবন নিয়ন্ত্রনের মধ্যে থাকুক তাহলে বিবাহের পরিকল্পনাকারী হিসেবে আপনার ক্যারিয়ারের জন্য বেছে নিতে পারেন। একটি দম্পতির বিবাহ পরিকল্পনায় সাহায্য করা এবং তাদের জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিনের পার্টি এক সাথে উদযাপন করার জন্য আপনি আপনার পরিকল্পনা কাজে লাগাতে পারেন। নিম্নলিখিত ধাপে আপনার জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ ধারনা দেওয়া হল কিভাবে আপনি একজন সফল বিবাহ পরিকল্পক হতে পারবেন-

ধাপ-১ বিবাহ এবং বিবাহের পরিকল্পনা ইন্ডাস্ট্রিজ সম্পর্কে শেখা

১। বিবাহের শিল্পের সঙ্গে নিজেকে পরিচিত করান
প্রথমেই কাজ শুরু করার পূর্বে এই কাজ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন। এই বিষয় সমন্ধে পড়াশুনা করেন। অনলাইনে খোঁজ নিন। এ সম্পর্কে আপনি অনলাইনে অনেক তথ্য পাবেন যা আপনার শেখার জন্য অনেক কাজে আসবে।

২। বিবাহ পরিকল্পকদের সম্পর্কে জানুন
বর্তমানে অনেকেই বিবাহ পরিকল্পক হিসেবে আজ করছে। তারা কিভাবে কাজ করছে সে সম্পর্কে জানুন। আপনার সবার সাথে পরিচিত হওয়ার দরকার নেই। একজন অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ও ভালো বিবাহ পরিকল্পনাকারীর সাথে কথা বলুন। আপনার সময়কে কাজে লাগাতে পারবেন এবং নিয়ন্ত্রণের মাঝে রাখতে পারবেন। আপনার কাজের কোন নির্দিষ্ট সময় এখানে নেই। আপনার ক্লায়েন্টের যদি দিনে ৯ থকে ১০ ঘণ্টাও আপনার সাহায্যের দরকার হয় আপনার তা করতে হবে। বেশিরভাগ বিবাহ পার্টি শুক্রবার অথবা শনিবারেই হয় তাই আপনি পুরো সপ্তাহ সময় পাবেন আপনার পরিকল্পনা গোছাতে।

৩। আপনার শৈল্পিক চাহিদা সম্বন্ধে জানুন
বিবাহ পরিকল্পনা কাজটি অনেক প্রতিযোগিতামূলক শিল্প। একজন বিবাহ পরিকল্পক হওয়ার জন্য আপনার প্রচুর মেধার প্রয়োজন। আপনার ব্যবসাটি সার্থক ভাবে পরিচালনা করার জন্য এবং কিভাবে ব্যবস্থাপনা করার জন্য অনেক কিছু নিজে থেকেই শিখতে হবে। এটা অবিশ্বাস্যভাবে পুরষ্কারস্বরূপ। আপনি কোন যুগল দম্পতির স্পেশাল দিনের কাজটি করতে পারছেন এবং তাদের দিনটিকে আরও স্মরণীয় করে রাখার জন্য আপনি একটি সুন্দর পরিকল্পনা করে জাঁকজমক পার্টির উপহার দিতে পারেন। এখানে আবেগের চাহিদা রয়েছে। বিবাহ অনুষ্ঠান একটি সামাজিক অনুষ্ঠান। এখানে বাবা মা, ভাই বোন এবং আরও ঘনিষ্ঠ আত্মীয় স্বজনের উপস্থিতে এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। সুতরাং এই কাজটি আপনার জন্য একটি চ্যালেঞ্জিং ব্যবসা। এখানে আপনার বিবাহের দিন ১০ থেকে ১৫ ঘণ্টা দাড়িয়ে থেকে কাজ করতে হতে পারে। সুতরাং আপনাকে ঐদিন অনেক পরিশ্রমী হতে হবে।

৪। সফল হতে কতদিন সময় লাগে জানুন
একটি বিবাহের পরিকল্পক হিসেবে লাভজনক হতে ২-৪ বছর সময় লাগে। অনেক সময় আপনার ক্লায়েন্টের উপর নির্ভর করে আপনার সফলতা। এছাড়া আপনার অভিজ্ঞতা ও রেফারেন্স যা কিনা আপনার ব্যবসায় অনেকটা প্রভাব ফেলবে আপনি কতটা সফল হতে পারবেন।

ধাপ-২ আপনার পথ বিবেচনা করুন

১। এটা আপনার কর্মজীবনের জন্য সঠিক পছন্দ কিনা
আপনি পরবর্তীতে বিবাহ পরিকল্পনা সম্পর্কে অনেক কিছুই শিখলেন এবং বিবাহ পরিকল্পক হিসেবে কাজ করতে যাচ্ছেন তার আগে ভাবুন এই ব্যবসাটি আপনার জন্য সঠিক পথ কিনা এবং আপনার লাইফ স্টাইলের সাথে খাপ খায় কিনা। এ সমস্ত দিক বিবেচনা করেই আপনি এই ব্যবসাটি বেছে নিতে পারেন।

২। বিবাহ পরিকল্পনাকারী পেশাটি আপনার লাইফস্টাইলের সাথে কতটা মানানসই
আপনি যদি এই ব্যবসায় সফল হতে চান তাহলে আপনার এই কাজের জন্য যে কোন সময় আপনাকে দিতে হবে এমনকি রাতেও কাজ করার মানসিকতা থাকতে হবে। অনেক শারীরিক পরিশ্রম করতে হবে। তাহলে ভাবুন আপনি কি সেটি হ্যান্ডেল করতে পারবেন? আপনি আপনার ছুটির কিছু অংশ কাজে দিতে পারবেন তো? আপনার ক্লায়েন্টদের জন্য সব সময় দিতে পারবেন তো? কিছু কিছু ক্ষেত্রে এমনও হয় যখন আপনি ছুটিতে আছেন তখনও আপনার সময় দিতে হবে। এ সব কিছু নিয়ে চিন্তা করুন আপনি পারবেন তো?

৩। চিন্তা করুন বিবাহ পরিকল্পক পেশাটি আপনার ব্যক্তিত্বের সঙ্গে মানানসই কিনা
ক্লায়েন্ট ব্যবস্থাপনা থেকে শুরু করে আপনার নববধূ পর্যন্ত অনেক উল্লেখযোগ্য অংশ রয়েছে আপনার কাজের ক্ষেত্রে। অনেকের আপনার কাছে মানসিক দাবি থাকবে আপনি কি এগুলো হ্যান্ডেল করতে পারবেন? আপনি ইতিবাচক বিভিন্ন ব্যক্তিগত গতিবিদ্যা সঙ্গে মোকাবেলা করতে সক্ষম হবেন কি? আপনি লাজুক বা মিশুক কোন ধরনের? কারন এই কাজটি করার সময় পার্টিতে অনেক ধরনের মানুষের সাথে আপনার কথা বলতে হবে।

৪। চিন্তা করুন আপনি আর্থিক ভাবে সক্ষম কিনা
একজন বিবাহ পরিকল্পনাকারীর বেতন কোথাও সিমাবদ্ধ নেই। সে কত টাকা পাওয়ার যোগ্য তা নির্ভর করে তার বর্তমান খ্যাতির উপর। কিন্তু একজন সফল বিবাহ পরিকল্পক হিসেবে খ্যাতি অর্জন করার জন্য আপনার প্রথমে বিনিয়োগ করতে হবে। যেমন আপনার একটি অফিস থাকবে, এছাড়াও প্রাথমিক খরচ আপনাকেই বহন করতে হবে।

৫। সিদ্ধান্ত নিন
এইবার আপনি সিদ্ধান্ত নিন আপনি কি এই ব্যবসার জন্য অনুকূল। যদি আপনি মনে করেন যে আপনি এই ব্যবসায় দীর্ঘ পথ পারি দিতে পারবেন এবং উপরের সবকিছুই আপনার সাথে মানাসই তাহলে আপনি আপনার কাজ শুরু করতে পারেন।

wedding-plan-1

ধাপ-৩ আপনার দক্ষতা সেট নির্মাণের প্রণালী

১। আপনার অভিজ্ঞতা বিবেচনা করুন
আপনি ধীরে ধীরে একটি বিবাহের পরিকল্পক হিসেবে আপনার ব্যবসা স্থাপন করতে শুরু করবেন, তখন আপনার পেশাদারী এবং ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে আপনার নতুন কর্মজীবন পথ সুগম করতে পারেন। আপনার কর্মক্ষেত্রে কি কোন অভিজ্ঞতা হয়েছে এই পরিকল্পনাকারী কাজ সম্পর্কে? অথবা আপনি কোন জন্মদিন এবং ডিনার পার্টি থেকেও যদি পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকে এক্ষেত্রে আপনি কাজে লাগাতে পারবেন। আপনার বিবাহ পরিকল্পনা সম্বন্ধে কোন যদি অভিজ্ঞতা না থাকে তাহলে আপনি এ বিষয়ের উপর কোন কোর্স করতে পারেন অথবা প্রশিক্ষণ নিতে পারেন।

২। নিজেকে শিক্ষিত করুন
যদিও একজন সফল বিবাহ পরিকল্পনাকারী হওয়ার জন্য কোন আনুষ্ঠানিক জ্ঞানের প্রয়োজন নেই দরকার শুধু কিছু ব্যবসায়িক জ্ঞান নিজেকে সফল করার জন্য। সেখানে একটি বিবাহের পরিকল্পক হিসেবে আনুষ্ঠানিক শিক্ষার জন্য অনেক অপশন আছে। আপনি স্থানীয় কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইন কোর্স বা ক্লাস করে এই শিক্ষা লাভ করতে পারেন।

৩। বিবাহের পরিকল্পক হিসাবে নিজেকে প্রত্যয়িত করুন
আপনি একটি সার্টিফিকেট নিন বিবাহ পরিকল্পক হিসেবে। অনেক সময় ক্লায়েন্টরা জানতে চাই এই বিষয় সম্বন্ধে আপনার অভিজ্ঞতা এবং কতটুকু জানেন। আপনার সফলতার পিছনে এ বিষয়টি অনেক প্রভাব ফেলে।

৪। বাণিজ্য ও জনপ্রিয় প্রকাশনা পড়ুন
বিবাহের শিল্প প্রকাশনা নববধূদের নিয়ে অনেক আর্টিকেল প্রকাশ করুন। আপনি সেই সব নিবন্ধ পড়তে পারেন। জনপ্রিয় বই, ম্যাগাজিন পড়ে অনেক ধারনা পেতে পারেন কি ধরনের সাজ সজ্জা বিবাহ অনুষ্ঠানে বড় বধুর হয়। এছাড়াও আপনি ব্যবসায় প্রকাশনার উপর বই পড়তে পারেন যা আপনার ব্যবসা সফলতা আনতে সাহায্য করবে।

৫। বিবাহের সম্মেলন ও প্রদর্শনীতে যোগদান করুন
এ ধরনের অনুষ্ঠানে আপনি উপস্থিত থাকলে আপনার বিবাহ পরিকল্পক হতে বেশি কষ্ট করতে হবে না। আপনি সরাসরি দেখতে পারবেন কিভাবে একটি বিবাহ কাজ সম্পাদান হয়। প্রয়োজন হলে নোট করে রাখুন। আপনি বিবাহ পরিকল্পকের সাথে পরিচিত হওয়ার জন্য সুযোগ পাবেন। আপনি পরিবারের সদস্য ও আপনার পরিচিত যে কারো বিবাহতে অংশগ্রহণ করুন। আপনার নিজের জন্য হলেও এ ধরনের ফাংশন কখনই মিস করবেন না।

ধাপ-৪ সকল তথ্য একত্রিত করুন

১। বিবাহ পরিকল্পক হিসেবে আপনার অভিজ্ঞতা জড়ো করুন
বিবাহ পরিকল্পনা সম্পর্কে আপনার যতো অভিজ্ঞতা আছে তা একত্রিত করুন যা কিনা পরবর্তীতে আপনার ব্যবসায় কাজে লাগবে। আপনার ক্লায়েন্টদের জন্য আপনি আপনার অফিস সহকর্মীদের রেফারেন্স এবং পরামর্শ নিতে পারেন।

২। বিবাহ পরিকল্পকের সাথে ইন্টার্ন হিসেবে কিছুদিন কাজ করুন
আপনার আনুষ্ঠানিক শিক্ষার চেয়ে আপনার কাজের জন্য বাস্তব অভিজ্ঞতা বেশি কাজে লাগবে। আপনার অফিসের বস আপনার রেফারেন্স দিতে পারে। আপনি যার হয়ে কাজ করছেন সে আপনার বস। আপনি যদি ভালো ভাবে কাজ করেন তাহলে সেই আপনাকে অনেক ক্লায়েন্ট দিবে।

৩। বিবাহ পরিকল্পক হিসেবে কোন প্রতিষ্ঠানে কিছুদিন চাকরি করতে পারেন
আপনার পূর্ব ধারনা এবং বাস্তব অভিজ্ঞতা আপনার ব্যবহারিক কাজ করার ক্ষেত্রে অনেক সাহায্য করে। আপনি কোন প্রতিষ্ঠানে কিছুদিন কাজ করতে পারলে নিজেই বুঝবেন কিভাবে ক্লায়েন্ট পাওয়া যায় এবং ক্লায়েন্টদের ম্যানেজ করা যায়।

৪। বন্ধু এবং পরিবারের জন্য পরিকল্পনা করুন
আপনার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানর জন্য আপনি প্রথমে আপনার পরিবার ও বন্ধু বান্ধবের বিবাহের পরিকল্পক হিসেবে কাজ করতে পারেন এবং এটা যদি আপনি ভালভাবে সম্পন্ন করতে পারেন দেখবেন ঐখান থেকেই অনেক রেফারেন্স পাচ্ছেন।

৫। বিবাহ পরিকল্পক, ক্লায়েন্ট এবং বিক্রেতাদের সাথে নেটওয়ার্ক তৈরি করুন
আপনার নেটওয়ার্ক বাড়ানোর জন্য আপনার ব্যবসা সম্পর্কিত সকল তথ্য অনলাইনে দিতে পারেন। আপনার ব্যবসা সংক্রান্ত সকল তথ্য আপনার নিজস্ব ওয়েব সাইটে দিতে পারেন। ক্লায়েন্টরা যেন অনলাইন থেকেই আপনার সম্বন্ধে সকল ইনফরমেশন পাই। আপনার পরিচিতি বাড়ানোর জন্য আপনার নেটওয়ার্ক বাড়ানো জরুরী। তাহলে আপনি অন্য যে কোন বিবাহের পরিকল্পনাকারী হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

ধাপ-৫ আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠা করুন

১। আপনার ব্যবসা স্থাপন করুন
আপনি একটি বৈধ ব্যবসা করছেন তার জন্য আপনার ব্যবসার বৈধতার সত্তা থাকতে হবে। এই সময় আপনি একজন ব্যবসায়ী। তাই আপনার দরকার আপনার ব্যবসার জন্য উপযুক্ত মার্কেটিং কৌশল। আপনার মনে যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে এর আগে যারা ক্ষুদ্র ব্যবসা করেছে তাদের কাছ থেকে পরামর্শ নিতে পারেন।

২। লাইসেন্স, সার্টিফিকেট ও বীমাসহ প্রয়োজনীয় সবকিছু আছে নিশ্চিত হন
আপনার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সব আছে কিনা এবং এগুলো যাচাই করার জন্য কোন অভিজ্ঞ লোকের পরামর্শ নিতে পারেন এবং আপনার ব্যবসা সংক্রান্ত দলিলাদি পরীক্ষা করাতে পারেন। এছাড়াও আপনি ইন্টারনাল রেভিনিউ সার্ভিস এর সহায়তা নিতে পারেন।

৩। স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদী ব্যবসা পরিকল্পনা তৈরি করুন
এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ যেখান থেকে আপনার ব্যবসা শুরু করতে পারেন। যে কোন ব্যবসায়ের জন্য পরিকল্পনা করা অনেক জরুরী। কারন সঠিক পরিকল্পনা ছাড়া কোন কাজই সফল হয় না। আপনি সল্প অথবা দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা করতে পারেন। স্বল্পমেয়াদী পরিকল্পনা ৬ মাসের হতে পারে এবং দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা ১ বছর অথবা তার চেয়ে দীর্ঘ সময়ের জন্যও হতে পারে।

৪। ব্যবসার জন্য একজন পরামর্শদাতা রাখতে পারেন
আপনি অভিজ্ঞ পরামর্শদাতা রাখতে পারেন যারা বিবাহ পরিকল্পনা সম্পর্কে জানে এবং কাজ করেছে। তাহলে অতি দ্রুত আপনার ব্যবসায় সফলতা আসবে। এই ব্যক্তি কিভাবে ক্লায়েন্ট ও বিক্রতাদের সাথে আচরন করবেন এ সব কিছুই শিখাবে।

ধাপ-৬ আপনার ব্যবসা নির্মাণের প্রণালী

১। আপনার সেবা বিবেচনা করুন
আপনি আপনার গ্রাহকদের জন্য কি ধরনের সেবা প্রদান করছেন এবং ভবিষ্যৎ এ আপনি কতটুকু সেবা প্রদান করবেন ও কিভাবে করবে তার একটি তালিকা তৈরি করে গ্রাহকের সামনে তুলে ধরুন। এতে আপনার ব্যবসার অনেক গুরুত্বপূর্ণ জিনিস গ্রাহকদের সামনে আসবে।

২। একটি মুল্য কাঠামো দাঁড় করান
আপনি যে সেবা দিতে যাচ্ছেন তার জন্য একটি চার্জ দাঁড় করান। অন্য বিবাহ পরিকল্পকদের প্রয়োজনে জিজ্ঞেস করতে পারেন তারা কেমন চার্জ রাখে। আপনি যদি অভিজ্ঞ হয়ে যান তাহলে আপনি একটি বড় টাকার অংক চার্জ হিসেবে রাখতে পারেন। তবে সকল বিবাহের জন্য একই চার্জ ধরা যাবে না। বিবাহের ধরন অনুযায়ী আপনার চার্জ ধরতে পারেন।

৩। চালান এবং পেমেন্ট সিস্টেম সেট আপ করুন
আপনি এখন আপনার মুল্য গঠন সম্পর্কে জানেন। এখন গ্রাহকরা আপনাকে পেমেন্ট করবে এবং তার জন্য একটি চালানের ব্যবস্থা করতে হবে। আপনার ব্যবসার জন্য একটি পৃথক ব্যাংক একাউন্ট নিশ্চিত করুন। এছাড়াও আপনি একটি ক্রেডিট লাইন তৈরি করুন।

৪। ক্লায়েন্টের কাছে নিজেকে সচ্ছ রাখুন
আপনার ক্লায়েন্টের কাছে আপনার মুল্য এবং ব্যবসা সংক্রান্ত যে কোন তথ্য সবসময় সচ্ছ রাখুন। এতে আপনার ব্যবসা সফলতা পাবেন।

৫। আপনার কাজের একটি পোর্টফোলিও তৈরি করুন
আপনার সম্ভাব্য ক্লায়েন্ট এবং প্রকৃত ক্লায়েন্টদের একত্রিত করে একটি তালিকা তৈরি করুন। আপনি নোট করুন অন্যান্য বিবাহ পরিকল্পক থাকে আলাদা হওয়ার জন্য আপনার কি করতে হবে। তাদের সাথে আপনার পার্থক্য কোথায়।

৬। বাজারজাতকরণ কৌশল সেটআপ করুন
সফল বিজ্ঞাপন আপনি গ্রাহকদের আকর্ষণ এবং আপনার পেশাদারী নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে সাহায্য করবে। বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য একটি প্রিন্ট মিডিয়া ব্যবহার করুন। এছাড়া আপনার ব্যবসার জন্য অনলাইনেও বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।

৭। কর্মী নিয়োগের প্রয়োজন আছে কিনা বিবেচনা করুন
প্রাথমিক পর্যায়ে আপনি একাই কাজ শুরু করেছেন কিন্তু যখন আপনার ব্যবসা বৃদ্ধি পাবে তখনও আপনার কর্মী নিয়োগের প্রয়োজন হতে পারে। আপনার ব্যবসা যখন একটি পর্যায়ে আসবে তখন আপনি কর্মী নিয়োগের ব্যপারে ভাববেন। কারন আপনার প্রথমে আর্থিক ভাবে সচ্ছল নাও থাকতে পারে।

৮। আপনার নেটওয়ার্ক তৈরি করুন
আপনার বিয়ের পরিকল্পক হিসেবে অভিজ্ঞতা অর্জন করা হলে আপনার নেটওয়ার্ক বাড়ান। আপনার ব্যবসা সমৃদ্ধি করুন। আপনার ব্যবসার জন্য অংশীদার ঠিক করতে পারেন। আপনার ব্যবসার পরিচিতির জন্য সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করতে পারেন।

৯। শিক্ষা চালিয়ে যান
শেখার কোন শেষ নাই। আপনার ব্যবসাকে বৃদ্ধি করার জন্য আপনি এ বিষয়ে শিখা বন্ধ করবেন না। আপনি যতো বেশি শিখতে পারবেন ততো বেশি আপনার ব্যবসায় সফলতা অর্জন করতে পারবেন। আপনার জন্য ভালো হবে যেখান থেকে শুরু করেছিলেন সেখান থেকেই নিয়মিত দক্ষতা অর্জন করতে থাকুন। আপনি নিয়মিত বানিজ্য প্রকাশনার বই গুলো পড়তে পারেন। এছাড়া বিবাহ পরিকল্পকদের সাথে সবসময় নেটওয়ার্ক রাখুন।

১০। উপভোগ করুন
আপনি বিবাহের পরিকল্পক হিসেবে নিজেকে দার করাতে যাচ্ছেন। মনে রাখবেন আপনি একটি দম্পতির বিশেষ দিনে অংশগ্রহন করতে যাচ্ছেন তাই আপনিও মন থেকে উপভোগ করুন।

Afrin Mukti

Afrin Mukti

Afrin complete her MBA in marketing, beside this she love music and read lots of books. She also write about online marketing, Bangladesh fashion trend and anything that interested her. She is very dynamic and details oriented.
Afrin Mukti

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY