সঠিক সিদ্ধান্ত নিবেন যেভাবে

0
236
সঠিক সিদ্ধান্ত নিবেন যেভাবে
5 (100%) 4 votes

আমারা প্রতিদিনই কোন না কোন ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকি। তবে আমরা আগে থেকে বলতে পারি না এর ফলাফল কি হবে? অনেক সময় আমরা কোন কিছু বিবেচনা না করেই সিদ্ধান্ত নেই। আমাদের সিদ্ধান্তের ফলাফল পজেটিভ হতে পারে আবার অনেক সময় নেগেটিভ ও হতে পারে। তাই সিদ্ধান্ত নেয়ার পুর্বেই অনেক সময় নিয়ে ভেবে দেখুন। আপনি যদি তাড়াহুড়া করে কোন সিদ্ধান্ত ভুল নেন তখন তার প্রভাব আপনার উপরই পড়বে। আপনার দৃষ্টিকোণ থেকে আপনি কি করতে পারবেন তার উপর ভিত্তি করে যুক্তিসঙ্গত সিদ্ধান্ত নিন। যে কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করুন। সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রসঙ্গে আরও জানার জন্য আমার লিখাটি পড়ুন-

১। আপনার ভয় সম্পর্কে জানুন

আপনার ভয় গুলো যদি চিহ্নিত করতে পারেন তাহলে এটি আপনাকে ভালো একটি সিদ্ধান্ত গ্রহন করতে সহায়তা করবে। আপনার সিদ্ধান্তের বিষয়টি সম্পর্কে ভাবুন। এরপর সিদ্ধান্তটির সাথে সম্পর্কিত আপনার ভয়গুলোর একটি তালিকা তৈরি করুন এবং আপনার সিদ্ধান্তের ফলে আপনার কোন কোন ভয় গুলো সামনে আসতে পারে তা জানুন এবং আগেই পস্তুত হোন।

২। আপনার সিদ্ধান্তটি স্থায়ী হবে কি না বিবেচনা করুন

আপনি যে সিদ্ধান্ত টি নিচ্ছেন তা স্থায়ী হবে কিনা ভাবুন। সবকিছু ভেবে নিয়েছেন তার পর ও তো সিদ্ধান্ত টি ভুল হয়ে যেতে পারে, তাই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পূর্বেই সময় নিয়ে চিন্তা করে নিন। এছাড়াও ভুল হওয়ার পর সিদ্ধান্ত টি পরিবর্তন যোগ্য কিনা তাও বিবেচনা করুন।

৩। বন্ধু বা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলুন

একা একা কোন বড় বা কঠিন সিদ্ধান্ত নেয়া অনেক সময় কষ্টকর হয়ে উঠে। তাই আপনি একা না পারলে বিশ্বস্ত কোন বন্ধু বা পরিবারের সদস্যদের সাহায্য নিতে পারেন। সেই সাথে কি ভুল হয়ে যেতে পারে এবং আপনার ভয় সম্পর্কে বিশদভাবে আলোচনা করুন। এমনকি আপনি অনলাইন অনুসন্ধান করতে পারেন। । যেখানে আপনি অনেক মানুষের কাছে শেয়ার করতে পারছেন। অনেকের মন্তব্য জানতে পারছেন। তখন আপনি সেরা কোন মন্তব্য বাছাই করে কোন সিদ্ধান্তে উপনীত হতে পারেন।

family discussion

৪। শান্ত থাকুন

আবেগের বশে কিংবা চটজলদি কোন ইতিবাচক বা নেতিবাচক সিদ্ধান্তে উপনীত হবেন না। যখন আপনি গুরুত্বপূর্ণ কোন সিদ্ধান্ত নিতে যাবেন তখন শান্ত থাকার চেষ্টা করুন। আপনি পারলে নিরব কোন জায়গায় চলে যান ভাবুন তারপর সিদ্ধান্ত নিন। গভীর শ্বাস নিন দেখবেন অনেকটা অস্থিরতা দূর হবে।

৫। যতটা সম্ভব তথ্য সংগ্রহ করুন

আপনি একটি সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য পূর্বেই যথেষ্ট তথ্য সংগ্রহ করুন। আপনার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে যতটা সম্ভব গবেষণা করুন। কারন আপনি যত বেশি ভেবে চিন্তে সিদ্ধান্ত নিবেন আপনার সিদ্ধান্ত তত বেশি কার্যকর হবে।

৬। আপনার সমস্ত বিকল্পের একটি তালিকা তৈরি করুন

এইবার আপনি আপনার সমস্ত চিন্তা ভাবনা ও পরামর্শ গুলোকে একত্রিত করুন এবং একটি তালিকা তৈরি করুন। সবার প্রথমে তালিকাটি নিয়ে ভাবুন কিছু সময়। তারপর কোন বিজ্ঞ লোকের পরামর্শ নিতে পারেন।
b2b-decision-making-process

৭। আপনার কাছের কোন বন্ধুর পরামর্শ নিন

জীবনে চলার পথে কাউকে না কাউকে বিশ্বাস করতে হবে। আপনি নিজেই ভালো বুঝতে পারবেন যে কোন লোকটি আপনার ভালো চায়। তাই এমন কারো কাছে আপনার সিদ্ধান্তটি নিয়ে আলোচনা করতে পারেন। তারপর আপনারটির সাথে মিলিয়ে দেখতে পারেন। দুটোর সাথে সামঞ্জস্য করে আপনি সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

৮। ভবিষ্যৎ সম্পর্কে চিন্তা করুন

সিদ্ধান্ত টি নেয়ার পর আপনার উপর কোন ধরনের প্রভাব পড়তে পারে তা নিয়ে চিন্তা করুন। ভালো না খারাপ ভাবুন। আপনি আয়নার সামনে দাড়িয়ে ভাবুন যে আপনার সিদ্ধান্ত টি ভবিষ্যৎ এর জন্য কতটুকু কার্যকর।

৯। নিজেকে জিজ্ঞাসা করুন আপনি কি করতে চান

যে কোন ভালো সিদ্ধান্ত নেওয়ার পূর্বে নিজেকে প্রশ্ন করুন আপনার মন কি চাচ্ছে। কোন সিদ্ধান্তটি নিলে আপনার জন্য সঠিক হবে। অনেক সময় নিজের মনকে প্রশ্ন করলে সঠিক উত্তর পাওয়া যায়। তবে আপনার মন সায় না দিলে আপনি সেই সিদ্ধান্তটি নিবেন না।

১০। ব্যাকআপ পরিকল্পনা করে রাখুন

আপনি কোন সিদ্ধান্তে স্থির হওয়ার পূর্বেই একটি পরিকল্পনা করে রাখুন। এতো কিছু পর্যালোচনা করেও যদি আপনার সিদ্ধান্ত টি ভুল সিদ্ধান্তে উপনীত হয় তাহলে আপনার ব্যাকআপ পরিকল্পনাটি কাজে লাগাতে পারবেন এবং কোন প্রকার সমস্যার সম্মুখীন হবেন না।

১১। একটি সিদ্ধান্ত বাছাই করুন

কোন ব্যাপারে সিদ্ধান্ত তখনই নিবেন যখন এর ফলাফল আপনার সামনে পরিষ্কার হবে। আপনি অনেক পর্যালোচনা করে দেখলেন আপনি যে সিদ্ধান্তটি নিতে যাচ্ছেন তা সকল সিদ্ধান্ত থেকে সেরা এবং এতে ভবিষ্যৎ এ কোন খারাপ ফলাফল হবে না। তাই এখন আপনি একটি সিদ্ধান্ত নিন এবং সিদ্ধান্তটি নেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকুন।

right dicision

উপরের আলোচনা থেকে আশাকরি আপনারা কিছুটা হলেও বুঝতে সক্ষম হয়েছেন কিভাবে আমরা কোন সিদ্ধান্ত গ্রহন করতে পারব। তবে আমরা যে সিদ্ধান্তই নেই না কেন আমাদের মনে রাখতে হবে যে আমার একার সিদ্ধান্তের ফলে আমার লাভ হলেও অন্যদের যেন ক্ষতি না হয়। নিজের লাভ করে অন্যের ক্ষতি হয় বা খারাপ প্রভাব পড়বে এমন কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া থেকে বিরত থাকবেন।

Afrin Mukti

Afrin Mukti

Afrin complete her MBA in marketing, beside this she love music and read lots of books. She also write about online marketing, Bangladesh fashion trend and anything that interested her. She is very dynamic and details oriented.
Afrin Mukti

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY