কেনো মেয়েরা সামাজিক মিডিয়ায় ছবি এডিটিং করে এবং এটা করা কি উচিত?

0
1109
কেনো মেয়েরা সামাজিক মিডিয়ায় ছবি এডিটিং করে এবং এটা করা কি উচিত?
Rate this post

আপনাদের কি মনে হয় মেয়েরা কেনো সামাজিক মিডিয়ায় ছবি এডিটিং করে এবং এটা করা কি উচিত? সৃষ্টির শুরু থেকেই মানুষ সৌন্দর্যের পূজারী। সভ্যতা দিন দিন বিকশিত হয়েছে তার সাথে তাল মিলিয়ে সৌন্দর্য ও বিকশিত হয়েছে, তবে আগের সৌন্দর্য ছিল কৃত্তিমতা বিবর্জিত। কিন্তু যুগের সাথে তাল মিলাতে গিয়ে সৌন্দর্য এখন অনেকটাই কৃত্তিমতা নির্ভর।

নারীদের ক্ষেত্রে ও এর প্রভাব বিস্তার

আজকাল নারীদের সৌন্দর্য হয়ে যাচ্ছে অনেকটা প্রযুক্তি নির্ভর। কিন্তু প্রযুক্তি আর সৌন্দর্য দুটির সাথে কোন সাদৃশ্য আছে কি? হ্যাঁ সৌন্দর্য যখন প্রযুক্তি ব্যবহার করে করা হয়, তখন সাদৃশ্য আছে। নারীদের আজকাল প্রায়ই দেখা যায়, ছবি সম্পাদনা করে সুন্দর হতে। কিন্তু তাতে সৌন্দর্য কতখানি বৃদ্ধি পায়। প্রিয়জন অথবা নির্দিষ্ট কোন গ্রুপ বা ব্যাক্তি অথবা কোন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে জনপ্রিয় হওয়ার জন্য নারীরাই প্রায়ই ছবি সম্পাদনা করে। অনেক ক্ষেত্রে তা সফল ও হয়। সবাই ভাবে কে সুন্দরী, তার প্রতি সবার অনুভুতি/ সম্মান/ ভালবাসা ও তৈরি হয়। কিন্তু এই অনুভুতি বেশিদিন থাকে না, যখন তার আসল সৌন্দর্য প্রকাশ পায়। তখন সবাই তাকে এড়িয়ে চলে যা তার ওপর বিরুপ প্রভাব ফেলতে পারে। কদিন আগেই যে জনপ্রিয় ছিল সে তখন জনপ্রিয়তার তলানিতে চলে যায়। সে হতাশা ও বিষাদে ভোগে। সকল ক্ষেত্রে তার বিকাশ বাধাগ্রস্ত হয়। কোন কাজে সে মনোযোগ দিতে পারে না।

অতিরিক্ত ছবি সম্পাদন করা ঠিক না

এজন্য মেয়েদের অবশ্যই সোশাল মিডিয়া বা অন্য কোথাও অতিরিক্ত ছবি সম্পাদনা করা ঠিক না। তার স্বাভাবিক সৌন্দর্য যাদের আকৃষ্ট করবে তারা তাকে সব সময় সম্মান করবে যা তাকে সামনে নিয়ে যাবে অনেক দূর। নারীরা তাদের সৌন্দর্য নিরে বরাবর খুতখুতে স্বভাবের হয়। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম গুলোর লাখো মানুষের আনাগোনা। স্বাভাবিক ভাবেই তারা ঝুকি নিতে চায় না, নিজেদের সৌন্দর্য নিয়ে। তাই তারা বিভিন্ন ফটোশপ, ফটো-এডিটিং এর ধারনা ধরে। কিন্তু এ সব করে কি আর সুন্দর হওয়া যায়, স্থায়ী ভাবে নয়। তাই মেয়েদের অবশ্যই এই দিকে খেয়াল দিতে হবে।

নারীরা নিজেদের কে সব সময় সুন্দর,পরিপাটি ও গোছালো রাখতে পছন্দ করে। আর এজন্য তারা সব সময় কোন না কোন ভাবে সাজগোজ করে থাকে। বর্তমানে এই প্রযুক্তি নির্ভর যুগে ফটোশপ ও ফটো এডিটিং এটাকে এক নতুন মাত্রা প্রদান করেছে।

অনেকের এখন সেই পুরানো দিনের মত সাজগোজ করে না। কিন্তু এত ফটোশপরে কারসাজির কারনে তাদের আসল রুপ আড়াল পরে যায়। এই ছবি যখন কোন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে তখন তা ভাইরাল হয়ে পরে। তাতে হাজারও লাইক পরে। কিন্তু তার আসল সৌন্দর্য চিরদিনেই আড়াল হয়ে থাকে। অনেক সময় এই ফটোশপের কারনে মানুষ অন্যের সৌন্দর্যের উপর আস্থা হারিয়ে ফেলে। শুরু হয় ভুল বুঝাবুঝি। এটা অনেক সময় দাম্পত্য কহল তৈরি করতে পারে।

আবার আনেক সময় এডিটিং ছবিতে অনেক ছেলেরা বা অনেক ব্যক্তিরা নানা ধরনের বাজে কথা বলে থাকে। যা দেখতে বা শুনতে ও খারাপ লাগে। তাই এ সকল ক্ষেত্রে মেয়েদের অবশ্যই সচেতন থাকতে হবে। ছবি সম্পাদনা কোন খারাপ কাজ নয় তবে তা এমন ভাবে করা উচিত যা তার সত্যিকার সৌন্দর্যকে আড়াল না করে।

Shaila Shahanaj

Shaila Shahanaj

Shaila Shahanaj lives with deep passion of in psychology. She have expertise in behavior and mind, embracing all aspects of conscious and unconscious experience as well as thought.
Beside she loves music and read lots of books.
Shaila Shahanaj

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY