প্রত্যেকের কাছে প্রিয় বস হওয়ার ৮টি উপায়

0
554
প্রত্যেকের কাছে প্রিয় বস হওয়ার ৮টি উপায়
5 (100%) 2 votes

কঠোর পরিশ্রম এবং ভালো মানুষ হওয়া। কর্মক্ষেত্রে আপনি শুধু একজন বস হয়ে যাবেন তা হয় কি? আপনি সবার কাছে একজন ভালো মানুষ ও ভালো বস হিসেবে থাকুন। এতে আপনারই উপকার বেশি হবে। আপনি আপনার অধস্তনদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরন করুন। একজন ভালো বস হতে পারলে অফিসে আপনার সম্মান বৃদ্ধি পাবে। আপনি আপনার কাজ সঠিক ভাবে আদায় করতে পারবেন। মুখের কথায় একজন ভালো বস হওয়া যায় না। একজন ভালো বস হওয়ার জন্য আপনার ব্যাক্তি জীবনে ভালো মানুষ হতে হবে। ভালো বস হওয়ার জন্য আপনার মাঝে কিছু গুণাবলী থাকা আবশ্যক-

১। “কুল বস” হওয়ার চেষ্টা করবেন না

কর্মক্ষেত্রে কখনো কুল বস হওয়ার চেষ্টা করবেন না। সবার সাথে আপনি ভালো আচরন করবেন। আর ভালো ভাবে কথাও বলবেন। কিন্তু আপনার কথাবার্তার মাঝে একটা মার্জিত ভাব থাকবে। আপনার কমান্ড দেওয়ার সাথে সাথে যেন সবাই কাজটি করে সেই ভাবে থাকবেন।

২। মনে রাখুন কর্মীরা আপনার পরিবার নয়

আপনার কর্মীরা আপনার সতীর্থ এমনকি বন্ধু, কিন্তু মনে রাখবেন তারা আপনার পরিবার নয়। আপনি আপনার কোম্পানির সকলের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরন করবেন এবং সেই সাথে আপনার মনে রাখতে হবে আপনি কোম্পানির একজন বস।

৩। আমন্ত্রণ এবং সমালোচনা আলিঙ্গন

এর চেয়ে আরো কঠিন নিয়ম কোম্পানির বাকি নেতারা অনুসরণ করতে পারেন। কেউ কোন কাজে ভুল করলে আপনি সবার সামনে সমালোচনা করবেন না। তাকে আপনি পুনারায় কাজটি বুঝিয়ে দিতে পারেন। আপনার প্রতিষ্ঠানে অনেক দুর্বল লোক থাকবে তাদের সততা ও উন্নত করার অঙ্গীকার অত্যন্ত আকর্ষণীয়ভাবে সব সমালোচনা গ্রহণ করার দ্বারা প্রশংসা করুন।

৪। প্রেরণা হিসেবে ব্যবহার করবেন প্রতিযোগীদের

আপনার ব্যবসায় অনেক প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠান থাকবে এটাই স্বাভাবিক। প্রতিযোগীদের কাছ থেকেও আপনি অনেক কিছু শিখতে পারবেন। সেই প্রতিষ্ঠান গুলো কিভাবে এতো উপরে গেলো এবং তাদের পরিকল্পনা কিভাবে কার্যকর হচ্ছে তা আপনি খেয়াল রাখতে পারবেন। পন্যের গুনাগুন সম্পর্কে খোঁজ নিন তারপর আপনার কি পরিবর্তন করতে হবে তা জানুন। তাই বলা চলে আপনার প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠান থেকে আপনি প্রেরনা নিন।

৫। বড় সমস্যার সমাধান নিজেই করুন

প্রতিষ্ঠানে যখন কোন সমস্যা হয় তখন একজন প্রকৃত বস নিজে সমস্যার সমাধান করে থাকেন। কখনই কোন কর্মীকে আগে যেতে দিন না। ঝুঁকির সম্ভবনা থাকলে বসরাই সবার আগে ঝাঁপিয়ে পড়ে। কর্মীরা যাতে নিরাপদে সবসময় থাকতে পারে সেদিকে সব সময় নজর রাখে। একজন প্রকৃত বস যদি দেখে কর্মীরা কাজ করলে সমস্যা আরও বাড়তে পারে বা কর্মীর ক্ষতি হতে পারে এক্ষেত্রে নিজেই সমাধানের চেষ্টা করে।

৬। আবেগপ্রবণ হওয়া যাবে না

কর্মক্ষেত্রে আপনাকে আবেগপ্রবন হলে চলবে না। একজন প্রকৃত বস সবসময় তার প্রতিষ্ঠানে পেশাদার হয়। যখন তারা কাজ করে তখন আবেগকে পশ্রয় দেয়না। প্রতিষ্ঠানের কোন কর্মচারীকে বা যে কোন কিছু আবেগ দিয়ে বিচার করেন না এবং আবেগের বশবর্তী হয়ে কোন সিদ্ধান্ত নেন না। যদি কর্মীরা কোন সমস্যায় পড়ে তবে এক্ষেত্রে আপনার পক্ষে সম্ভব হলে সমাধানের চেষ্টা করতে হবে। কর্মীরা যদি কোন ভালো কাজ করে তাহলে সে কাজের প্রশংসা করুন এবং যদি কোন কাজে ভুল করে তাহলে তাদের ভুলটা ধরিয়ে দেওয়া একজন ভালো বসের কর্তব্য।

৭। সর্বজনীনভাবে আপনার ভুলের জন্য ক্ষমাপ্রার্থী

আপনি একজন বস তাই বলে কি আপনার ভুল হতে পারে না। আপনার ভুল হতে পারে। যদি আপনার ভুল আপনার সামনে তুলে ধরে তাহলে রেগে না গিয়ে ভুল স্বীকার করুন এবং আপনার ভুলের জন্য যদি কোন ক্ষতি হয় তাহলে সবার সামনে ক্ষমাপ্রার্থী হন। আপনি ক্ষমা চাইলেই সকলের সামনে ছোট হয়ে যাবেন না। বরং আপনাকে সবাই সম্মানের চোখে দেখবে।

৮। ভালো কাজের প্রশংসা করুন

বস হিসেবে আপনার কাজ শুধু প্রতিষ্ঠানের উন্নতি ও নিজের লক্ষ্য পূরণ করাই একমাত্র উদ্দেশ্য নয়। অনেক বস আছে যখন কর্মীরা ভালো ভাবে কাজ সম্পন্ন করে তখন প্রশংসা করতে চায় না। অনেক সময় ঘুরিয়ে নিজের কাঁধে নেয় ভালো কাজ করার ভাগ। এই কাজটি কখনই করবেন না। কেউ কোন কাজ করলে সাথে সাথে তার প্রশংসা করুন।

আপনি প্রত্যেকের কাছে প্রিয় বস হওয়ার জন্য আপনার নিজের মাঝে এই সব গুণ আগে আনতে হবে। আর আপনি সবার কাছে প্রিয় হলে সকল কর্মচারীরা এমনিতেই মনোযোগ দিয়ে কাজ করবে। আর আপনি উন্নতি করতে পারবেন।

Afrin Mukti

Afrin Mukti

Afrin complete her MBA in marketing, beside this she love music and read lots of books. She also write about online marketing, Bangladesh fashion trend and anything that interested her. She is very dynamic and details oriented.
Afrin Mukti

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY