বেশিদিন সুন্দর ও সুস্থ ভাবে বেচে থাকতে চান?

0
510
বেশিদিন সুন্দর ও সুস্থ ভাবে বেচে থাকতে চান?
5 (100%) 2 votes

জানতে চান কিছু মানুষ কেন বেশী দিন বাচে? আমি আজ সেই প্রশ্নের রহস্য প্রকাশ করবো। নাহ তারা কোন দির্ঘায়ু ঝর্নার পানি পান করেন নি। সত্যিকার অর্থে তারা এমন অভ্যাস ও আদর্শ মেনে চলতেন যা তাদের শুধু দীর্ঘ দিন বেচে থাকতেই নয় বরং তাদের সুখে জীবন যাপন করতেও সহায়তা করেছেন। ইউনিভার্সিটি অফ সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া তে মানুষের আয়ু গবেষনা করে একটি বার্ধক্যবিদ্যা প্রোগ্রাম হয়েছিল aging degree” নামে। একজন বার্ধক্য বিদ্যাবিদ সম্প্রতি ভারত দর্শন এ গিয়েছিল ৯০ ও ১০০ দশক এর লোকজন কিভাবে জীবন যাপন করে তা দেখার জন্য। আর যে গোপন সূত্র সে লক্ষ্য করেছে তা সত্যি জীবনকে উপভোগ করার মত তথ্য প্রদান করে।

সহজ ১০টি উপায়ে সুন্দর ও দীর্ঘ জীবন

  • দূশ্চিন্তা মুক্ত থাকা:
    দুশ্চিন্তা কখনই করবেন না। সবসময় দূশ্চিন্তা মুক্ত থাকতে হবে। আপনার খুশি থাকতে হবে। দূশ্চিন্তা স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে, ক্যান্সার ও ফুসফুস সমস্যা সৃষ্টি এবং রোগ প্রতিরোধক ব্যবস্থাপনা কে দুর্বল করে ফেলে। শরীর চর্চা, যোগব্যায়াম এ অংশগ্রহণ, এবং প্রতিটি দিন বিনোদন এর মাধ্যমে দূশ্চিন্তা কমাতে পারেন।
  • সামাজিক জীবন যাপন:
    গবেষনায় দেখা গেছে,বন্ধু ও পরিবারের সাথে নিজেকে সুন্দরভাবে জড়িয়ে ফেলতে পারলে বিষণ্নতা থেকে দূরে থাকা যায় যা প্রায়ই অকাল মৃত্যু হতে রক্ষা করে।মানুষ সামাজিক জীব, আর মানুষের সুস্থ্যতা অনেকাংশে অন্যদের সঙ্গের উপর নির্ভর করে। দীর্ঘায়ু পাওয়া সামাজিক জীবন এ সুখী থাকার একটা অংশ।
  • প্রত্যহ খাবারে মসলা যোগ করা:
    হোলিস্টিক বা ভেষজ স্বাস্থ্য চিকিৎসা স্বাস্থ্য শিক্ষায় নতুন। কিন্তু ভেষজ স্বাস্থ্য চিকিৎসা সম্পর্কে কোনো ভারতীও কে বলুন সে হাসবে আপনার উপর কারন তারা হাজার বছর আগে থেকেই দীর্ঘায়ু লাভ এর জন্য হলুদ ও দারুচিনির মত মসলা ব্যাবহার করে।
  • আধ্যাত্মিকতা খোজা ও বজায় রাখা:
    আধ্যাত্মিক ধর্মানুষ্ঠান, বিশ্বাস ও ঐতিহ্য যারা দীর্ঘায়ু লাভ করে তাদের একটি বিশেষ গুন। আধ্যাত্মিকতা কে দেখানো হয়েছে যে এটি মানসিক পুষ্টি বিধান করে।ভারতের ধর্মীয় ও আধ্যাত্মিক ঐতিহ্যের শিকড় খুব ই শক্তিশালী। কিন্তু যে কোন ধরনের আধ্যাত্মিকতা যা আত্মার সাথে সম্পর্কিত সেটি কাজ করবে।
  • কোন প্রানী পোষা
    একটি গৃহপালিত প্রানী পোষা দূশ্চিন্তা মুক্ত রাখে এবং রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। হতে পারে এটি একটি পশ্চিমা ঐতিহ্য , কিন্তু এটা স্পষ্টভাবে মানসিক চাপ দূরীকরনে এবং সামাজিক স্বাস্থ্য বৃদ্ধিতে প্রমাণিত হয়েছে।
  • আশাবাদী থাকা:
    যে বয়স্ক ব্যাক্তিদের সাক্ষাতকার নেয়া হয়েছিল তাদের মধ্যে সকল এই আশাবাদী ছিল। তাদের আশে পাশে যারা ছিল তারাও তাদের সংস্পর্শে এসে খুশি ছিল। তারা চায় যে এই এক ই মনোভাব যেন অন্যদের মধ্যেও আসে। মায়ের মত তারাও চেয়েছে যে তাদের আশেপাশে ও যেন সবাই ভাল থাকে।
  • কঠোর পরিশ্রম:
    বছরের পর বছর কঠোর পরিশ্রম করে কাজে অগ্রগতি হওয়ার পর হাতে একটা ড্রিংক হাতে নিয়ে একটি খেজুর গাছের তলায় বসে থেকে বাকি দিনগুলো কাটানো সকলের আদর্শ বলে মনে হতে পারে। কিন্তু যারা ​​দীর্ঘজীবী তারা সবসময় কিছু না কিছু বা ঘরের টুকিটাকি কাজ করতে করতে আগ্রহ প্রকাশ করে।
  • খাবার নিয়ন্ত্রন করুন:
    যা সামনে আছে তাই খাওয়া যাবে না। মানুষ যারা ​​দীর্ঘজীবী তারা কঠোর খাদ্যাভাস অনুসরন করে। তারা যখন তখন খায় না। তাদের খাওয়ার নির্দিষ্ট সময় আছে। সময় মত অল্প অল্প করে খায়। বেশি প্রক্রিয়াজাত খাদ্য তারা খায় না। সাধারণত মাংস এড়িয়ে চলে। ভেষজ উপাদান তাদের খাবার এ সবসময় ই থাকে।
  • শারীরিক কার্যকলাপ:
    দীর্ঘায়ু ব্যাক্তিরা সব সময় শারীরিক কার্যকলাপ করার জন্য পস্তুত থাকে। যেমন-তারা অনেক দূরত্ব হেটে অতিক্রম করতে পারে। এটি প্রমানিত যে,যারা দীর্ঘ দূরত্বের পথ হেটে অতিক্রম করতে পারে তারা বেশি স্বাস্থ্যসম্মত হয়।
  • শেখার শেষ নেই:
    বই পড়া, লেখা, কবিতা বা ধর্মগ্রন্থ মুখস্ত করা, গান শেখা, গল্প পড়া ইত্যাদি কিছু অভ্যাস যার সাথে দীর্ঘ জীবন এর মানুষেরা ধারাবাহিকভাবে নিয়োজিত থাকে।বিশ্ব সম্পর্কে নতুন কিছু শেখার আন্তরিক আগ্রহ এই ব্যক্তিদের মধ্যে একটি সাধারণ বৈশিষ্ট্য।
Summary
বেশিদিন সুন্দর ও সুস্থ ভাবে বেচে থাকতে চান?
Article Name
বেশিদিন সুন্দর ও সুস্থ ভাবে বেচে থাকতে চান?
Description
জানতে চান কিছু মানুষ কেন বেশী দিন বাচে?আমি আজ সেই রহস্য প্রকাশ করবো। নাহ তারা কোন দির্ঘায়ু ঝর্নার পানি পান করেন নি।
Author
Publisher Name
গ্রামীন মার্কেট
Jannatul Jarin

Jannatul Jarin

Jannatul Jarin is very friendly person and she completed her B.B.A from Daffodil International University in Marketing Major. Besides She was very conscious about fashion trend and beauty. She likes to smile herself and make laugh to others. She also write about online marketing. She is Self-Dependent, hard working and focused.
Jannatul Jarin

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY