মায়ের জন্য উপহার

0
353
মায়ের জন্য উপহার
5 (100%) 1 vote

মায়ের গুনগান লিখে বা বলে শেষ করা যাবে না কখনই। মায়ের মমতা, ভালোবাসা, স্নেহ নিয়ে অনেক কবি সাহিত্যিক রা অনেক কিছুই লিখেছেন, আমরা নতুন করে আর কি বলবো! ‘মা’ তো মা ই। শিশুকালে মা সন্তানের চোখের আড়াল হলেই, কেঁদে বুক ভাসায় শিশু। তখন মা সহজেই বুঝে নেন, ‘মাকে ছাড়া সন্তানের করুণ অবস্থা’। কিন্তু সন্তানরা বড় হলে লেখাপড়া কিংবা কাজের তাগিদে দূরে চলে যায়। মা একলা বাড়িতে থাকেন আর সন্তানদের আগমনের দিন গুনতে থাকেন। মা তখন চাইলেও তার বুকের ধনকে কাছে রাখতে পারেন না, মা সে কষ্টের কথা মুখ ফুটে কখনো বলেনও না, সন্তানের যদি কাজে অথবা পড়াশোনায় সমস্যা হয় এই কথা ভেবে। সময়ের ব্যবধানে দুরন্ত কৈশোরের মতো মাকে হয়তো আর ক্ষণে ক্ষণে জড়িয়ে ধরা হয় না। মা হয়তো ভাবেন সন্তান বড় হয়েছে, মায়ের প্রয়োজন ফুরিয়ে গেছে। মায়ের বুকটা হাহাকার করে সন্তানকে একটু জড়িয়ে ধরতে। আসলে পৃথিবীর সকল মায়ের মুখেই এক ছবি আর তা হলো স্বর্গ। অথচ স্বার্থপর আমরা ভুলে যাই মায়ের ভালোবাসা, ত্যাগ, জীবনের বিনিময়ে অমুল্য অবদান।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রতিবছর মে মাসের দ্বিতীয় রোববার মা দিবস হিসেবে পালন করা হয়। মায়ের জন্য বিশেষ এই দিনটিতে মাকে দিতে পারেন বিভিন্ন ধরনের উপহার। একটু ব্যতিক্রমধর্মী কিংবা মাকে চমকে দেয়ার মতো কোনো উপহার মায়ের হাতে তুলে দিতে পারলে মন্দ হয় না। মায়ের সঙ্গে সন্তানের ভালোবাসা, মমতা, মায়া, স্নেহের সম্পর্ক। এই সম্পর্কের কতটুকু যত্ন বা সেবা আপনি দৈনন্দিন কাজের ফাঁকে নিতে পারেন সে হিসাব মা দিবসে মিলিয়ে নিয়ে, নতুন উদ্যামে শুরু করতে পারেন ভালোবাসার সম্পর্ককে আরেকটু ভালোবাসায় ভরিয়ে দিতে। শপথ করতে পারেন আগামি দিনগুলো একটু বেশি যত্ন নেবেন আপনার মমতাময়ী মায়ের।

মাকে উপহার দেবার জন্য কোন বিশেষ দিনের প্রয়োজন নেই। মাকে খুশি করতে আপনার একটু ভালোবাসার ষ্পর্শই যথেষ্ট। তবে মাকে বেশি খুশি দেখতে চাইলে, মায়ের পছন্দের কাজগুলো করতে পারেন। দিতে পারেন মায়ের পছন্দের উপহার। আপনার সাধ্যের মধ্যে হতে পারে উপহারগুলো। কেমন হতে পারে সেসব উপহারের ধরন, চলুন জেনে নেই।

  • ভিন্ন ধরনের কিছু দিতে চাইলে কোনো শিল্পীকে দিয়ে করিয়ে নিন মায়ের সুন্দর মুখের স্কেচ। আর সেটি সুন্দর করে বাঁধিয়ে তুলে দিন মায়ের হাতে অথবা একটি সুন্দর ফ্রেমের মধ্যে করে দিতে পারেন মায়ের কোনো সুন্দর মুহূর্তের ছবি।
  • যদি শাড়ি উপহার দিতে চান, তাহলে দেখুন মায়ের কোন ধরনের শাড়ি বেশি পছন্দ। আবার যদি মা বই পড়তে ভালোবাসেন, তাহলে উপহার দিন মায়ের ভালো লাগে এমন কোনো বই। আর যদি মা গান শুনতে ভালোবাসেন, তাহলে কিনে ফেলুন তার পছন্দের গানের সিডি।
  • উপহার হিসেবে মাকে দিতে পারেন ‘মা’ লেখা সুন্দর মগ। কিছু মগের ওপর আবার রয়েছে মাকে নিয়ে লেখা কবিতার লাইন। এ ধরনের মগ পাবেন ফ্যাশন হাউসগুলোয়।
  • মায়েদের দিনের অনেকটা সময় কাটে রান্নাঘরে। তাহলে মায়ের রান্নাঘরটা একটু গুছিয়ে দিন। কিচেন শেল্ফে আনুন বৈচিত্র্য। শেল্ফের পেছনে আকর্ষণীয় ক্রাফট পেপার লাগিয়ে পরিপাটি করে গুছিয়ে দিন। ব্যবহার করতে পারেন অর্নামেন্টস, ফুলদানি বা আকর্ষণীয় বাসন-কোসন।
  • মা যদি সিনেমা দেখতে পছন্দ করে তাহলে তাকে সিনেমা দেখাতে নিয়ে যেতে পারেন। পছন্দের সিনেমার সিডি কিনে দিতে পারেন। একসাথে বসে দেখতে পারেন মায়ের পছন্দের সিনেমা।
  • mothers-gift-2

  • হয়তো আইডিয়াটা পুরোনো কিন্তু বেশ দ্রুত কাজটা করা যাবে এবং মজারও। এজন্য দরকার হবে, একটা পুরোনো বোতলে ছোট ছোট নানান রঙের কাগজে করে মনের কথা লিখুন। তারপর সেটা একটি পুরোনো কাচের বোতলে ভরে রিবন বেঁধে দিন গলায়। সকালে ব্রেকফাস্ট বা কোনো খাবারের সাথে পরিবেশন করতে পারেন। চাইলে ছোট ছোট কিছু রঙিন কাগজের নৌকা বানিয়েও ব্রেকফাস্ট ট্রেতে রেখে দিতে পারেন। দেখতে সুন্দর লাগবে।
  • মায়ের পছন্দের চকলেট বা কুকিজতো দিতেই পারেন। কিন্তু সেটাই এমন করে দিতে পারেন যেন মায়ের খুশির মাত্রাটা আরো বেড়ে যায়। একটা কাচের জারে এসব কুকিজ ভরে ফেলুন। তারপর বোতলটাতে গ্লাস পেইন্ট করিয়ে নিন। পরে রঙিন কাগজে শুভেচ্ছা জানিয়ে কিছু লিখে লাগিয়ে দিন জারের উপর। রঙচঙে রিবন দিয়ে সুন্দর করে বেঁধে সকাল বেলা ঘুম ভাঙতেই মায়ের হাতে তুলে দিন। দেখবেন মায়ের হাসিটা বিস্তৃত হবেই।
  • এত দিন তো মার হাতের মজাদার খাবার খেয়েছেন, বন্ধুদের কাছে গল্প করেছেন এই দিন না হয় মার জন্য আপনি রান্না করুন। মায়ের পছন্দের খাবার রান্না করে তাকে খাওয়ান ও স্পেশাল কিছু রান্না করে খাওয়ান। মনে রাখবেন মায়েরা ছোট ছোট বিষয়গুলোতে অনেক বেশি আনন্দ পায়।
  • অবসরে যদি মায়ের সঙ্গী বই হয়ে থাকে তাহলে তাঁর এই প্রিয় বইকেই উপহার হিসেবে বেছে নিন। দেখবেন, মা ভীষণ খুশি হবেন।
  • মা যদি গান শুনতে ভালোবাসেন, তাহলে তাকে তার পছন্দের কোনো শিল্পীর সিডির কালেকশন দিতে পারেন। অথবা সব প্রিয় শিল্পীর গান বাছাই করে সিডি করে দিতে পারেন। মায়ের পছন্দের সিনেমার ডিভিডিও গিফট করতে পারেন।

আব্রাহাম লিংকন মাকে স্মরণ করে বলেছিলেন- ‘আমি যা কিছু পেয়েছি, যা কিছু হয়েছি, অথবা যা হতে আশা করি তার জন্য আমি আমার মায়ের কাছে ঋণী’। ’নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন- মা-বাবা হল তোমার জান্নাত কিংবা জাহান্নাম। অর্থাৎ মা-বাবার মর্যাদা রক্ষা করে কেউ জান্নাতে যাবে আবার মা-বাবার অমর্যাদা করে কেউ জাহান্নামে যাবে। মাকে ভালোবাসতে, মাকে সম্মান করতে, মাকে খুশি করতে কিছুই লাগে না। শুধু ‘মা’ দিবসেই না, প্রতিদিনই একটি বার হাসিমুখে খবর নেই এই হোক আমাদের সকলের চাওয়া।

Afrin Mukti

Afrin Mukti

Afrin complete her MBA in marketing, beside this she love music and read lots of books. She also write about online marketing, Bangladesh fashion trend and anything that interested her. She is very dynamic and details oriented.
Afrin Mukti

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY