সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কি এবং এর কাজ সম্পর্কে ধারনা

0
380
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কি এবং এর কাজ সম্পর্কে ধারনা
5 (100%) 1 vote

যারা প্রতিনিয়ত অনলাইন এ নিয়মিত কাজ করেন তারা এস.ই.ও বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO/Search Engine Optimization) মানে হয়তো জানেন। কিন্তু যারা এ লাইনে নতুন তাদের এ সম্পর্কে ধারনা অনেক কম হওয়াই স্বাভাবিক তাই নবীন বা প্রবীন সবাই নিজের সাইট বা অন্য সাইট প্রস্তুত করার জন্য এসইও করেন তাদের এ সম্পর্কে সঠিক ধারণা থাকা প্রয়োজন।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কি?
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাজেশন হল অনেকের মধ্যে একটি পদ্ধতি যা কোন সাইট এর সার্চ ইঞ্জিন এর অবস্থান নির্ধারণ করে। অর্থাৎ এটি একটি প্রচারনা মাধ্যম। প্রতিটি সার্চ ইঞ্জিন এর একটি নির্দিষ্ট অপটিমাজেশন প্রণালী আছে। প্রতিটি সার্চ ইঞ্জিন এর জন্য এই নিয়ম অনেক ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন। তবে সকলে কিছু জিনিস ব্যবহার করে যা সকল সার্চ ইঞ্জিনে বিদ্যমান। প্রতিটি সার্চ ইঞ্জিন এর জন্য প্রচারণা ব্যবস্থা প্রায় এক হলেও কিছুটা পার্থক্য আছে। আমাদের প্রয়োজনীয় বিষয় হচ্ছে সেই সমান দিক গুলোকে ব্যবহার করা।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কথাটির ভীতরে দুটি অর্থবহুল অংশ রয়েছে। একটি হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন এবং অন্যটি হচ্ছে অপটিমাইজেশন। তারমানে দাড়াচ্ছে এসইও হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন-কে অপটিমাইজেশন করার এক ধরনের প্রযুক্তিগত ওয়েব কৌশল। এটিকে অন্যভাবেও বলা যায়- বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন হতে কোন একটি ব্লগ/ওয়েবসাইটকে সার্চ রেজাল্টের ভাল অবস্থানে অথবা প্রথম পাতায় নিয়ে আসার কৌশল বা প্রক্রিয়াকেই সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বলা হয়। এটিকে সার্চ ইঞ্জিন হতে ভাল ফলাফল পাওয়ার এক ধরনের নিয়মতান্ত্রিক চালাকিও বলতে পারেন। SEO হচ্ছে মূলত দুই প্রকারের। যথাঃ ০১. অর্গানিক এসইও ০২. পেইড এসইও। অর্গানিক এসইও আবার দুই ধরনের। একটি হচ্ছে On Page SEO এবং অন্যটি হচ্ছে Off Page SEO.

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর ধারনা
– একটি ব্লগ/ওয়েবসাইটকে সার্চ রেজাল্টের ভাল অবস্থানে বা প্রথম পাতায় নিয়ে আসার জন্য এবং সার্চ ইঞ্জিন হতে ভাল র‌্যাংকিং পাওয়ার জন্য বা সার্চ ইঞ্জিন হতে ব্লগে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর পাওয়ার জন্য মূলত সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করা হয়। একজন লোক যখন তার ওয়েবসাইটকে সঠিকভাবে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজ করবে তখন সার্চ ইঞ্জিন হতে তার ব্লগে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর বাড়তে থাকবে। কারণ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করার ফলে সার্চ ইঞ্জিন তার ব্লগের কনটেন্টের বিষয়বস্তু সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারনা পাবে। কাজেই যে কোন ওয়েবসাইটকে সফল করতে হলে বা ওয়েবসাইট হতে আয় করার জন্য প্রতিনিয়তই সঠিকভাবে তার ওয়েবসাইটটিকে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করতে হবে।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর কাজ
– অন-লাইন ব্লগিং, মার্কেটিং, ব্যবসার প্রচার ও অনলাইনে কোন বিষয়ে সফলতা অর্জনের জন্য SEO করতেই হবে। এসইও না করে কোনভাবেই অনলাইনের কোন বিষয়ে সাফল্য অর্জন করতে পারবেন না। তার কারণ হচ্ছে- ইন্টারনেটে সবাই সার্চ ইঞ্জিনের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় সকল বিষয় খোঁজে থাকেন। বিশেষকরে গুগল সার্চ ইঞ্জিনের ব্যবহার এত ব্যাপক, যার জন্য গুগল সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন না করে কোনভাবে সফল হওয়ার উপায় নেই। অধীকন্তু সম্প্রতি সময়ের জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার Mozilla Firefox ও Google Chrome সহ আরেক অনেক জনপ্রিয় Browsers গুলির ডিফল্ট সার্চ ইঞ্জিন Google হওয়ার করনে গুগল সার্চ ইঞ্জিনের ব্যবহার আরও বেশী বেড়ে গেছে। কাজেই আপনার ব্লগ/ওয়েবসাইটটি সবার কাছে পরিচিত ও জনপ্রিয় করে তোলার জন্য সার্চ ইঞ্জিনের বিকল্প আর কিছু নেই।

– একজন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজার পারেন একটা ব্র্যান্ডকে সবার সামনে সুন্দরভাবে উপস্থাপনা করতে। যখন কোন প্রোডাক্টে সার্চ রেজাল্টে উপরের পজিশনে কারো ওয়েবসাইট থাকে তখন সবাই সেটাকে বিশ্বাস করে। কারন মানুষ গুগলকে বিশ্বাস করে। যার কারনে সবার ভিতর একটা বিশ্বাস আসে ওয়েবসাইটের উপর। যার ফলে ওয়েব সাইটের ট্রাষ্ট অথোরিটি বেড়ে যায়। এর ফলে প্রোডাক্ট বিক্রি বেড়ে যাবে। এই জন্য সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন শেখা জন্য অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ।

– আপনি যদি সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনে দক্ষ হন তাহলে আপনি হতে পারেন একজন সফল ফ্রিল্যান্সার। এখন বাংলাদেশের অনেক তরুণের স্বপ্নের ক্যারিয়ার হলো এই ফ্রিল্যান্সিং। যেখান থেকে দক্ষরা হাজার হাজার ডলার আয় করে নিজের জীবন পাল্টে ফেলেছে। আর সেই মার্কেটে এসইও একটি অনেক বড় অংশ। কেবল আপনি যদি একজন দক্ষ এসইও এক্সপার্ট হতে পারেন তাহলে আপনি ও প্রতিমাসে আয় করতে পারবেন ভালো অংকের টাকা। ফ্রিল্যান্সার মার্কেটপ্লেস এর মধ্যে জনপ্রিয় হচ্ছে ওডেক্স, ফ্রিল্যান্সার, ইল্যান্স, ফাইভার, পিপল পার আওয়ার ইত্যাদি।

– ইন্টারনেট মার্কেটিং একটা গুরুত্বপূর্ণ পার্ট হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন। যা কিনা সার্চ ইঞ্জিন (গুগল, বিং, ইয়াহু, এমএসএন ইত্যাদি) থেকে অর্গানিক ভিজিটর সাথে কোয়ালিটি ভিজিটর আনতে সাহায্য করে। যখন মানুষ সার্চ ইঞ্জিনে কোন কি-ওয়ার্ড দ্বারা সার্চ করবে, আর আলটিমেটলি সেই কি-ওয়ার্ডে আপনার সাইট র‍্যাঙ্কে থাকে তখন যে ব্যাপারটা হয় তা এসইও।

– আপনি যদি সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বা এসইও এর মৌলিক বিষয়গুলো সঠিকভঅবে মেনে চলেন তবে খুব সহজেই আপনি এগিয়ে যেতে পারবেন। আপনি হয়ত বলবেন গুগলের সার্চের সঠিক এলগরিদমটি সঠিকভাবে কেউ জানে না, তাহলে কিভাবে এসইও টিপস বা ট্রিকসগুলো সঠিক হতে পারে? হেডিং এবং সাব হেডিং ব্যবহার করুন ওয়েব পেইজে হেডিং এবং সাবহেডিং শুধু মাত্র ভিজিটরদের দৃষ্টি আকর্ষন করে না বরং সার্চ ইঞ্জিনের ও দৃষ্টি আকর্ষন করে।

– নির্দিষ্ট কী ওয়ার্ড এর উপর ভিজিটর নিয়ে আসার জন্য যে এসইও এর কোন বিকল্প নেই! তাই অনলাইন মার্কেটিং এর সব বড় এবং প্রধান হাতিয়ার হিসাবে আপনি বেছে নিতে পারেন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনকে। অনলাইন মার্কেটিং এ অন্যের হয়ে কাজ করে বা নিজের পন্যের জন্য কাজ করে আপনি আপনার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ খুব সুন্দর ভাবে গড়ে তুলতে পারেন।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কঠিন কিছু নয়
– বেশীরভাগ লোকই এসইও বিষয়টাকে বেশ কঠিন ভেবে মনে করে- আমার দ্বারা এসইও শেখা সম্ভব হবে না। আমি তাদের উদ্দেশ্যে বলব বিষয়টাকে এত কঠিন না ভেবে সহজভাবে নিলে আপনিও একজন এসইও এক্সপার্ট হতে পারবেন। বিশেষকরে পেইড এসইও এর কথা না ভেবে আপনি ঐ টাকাগুলি দিয়ে ভালভাবে এসইও শিখে নিলে আপনার ব্লগটাকে ভবিষ্যতে একটি ভালমানের প্লাটফর্মে নিয়ে যেতে সক্ষম হবেন।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এসইও) এমন একটা প্রক্রিয়া, যার মাধ্যমে আপনার ব্যাক্তিগত ওয়েবসাইট বা আপনার ক্লায়েন্টের ওয়েবসাইট, কোন কোম্পানির সাইট কিংবা ব্লগ সাইটকে গুগল সার্চ ইঞ্জিনে নির্দিষ্টভাবে প্রথম পাতায় জায়গা দখল করানো যায়।

Afrin Mukti

Afrin Mukti

Afrin complete her MBA in marketing, beside this she love music and read lots of books. She also write about online marketing, Bangladesh fashion trend and anything that interested her. She is very dynamic and details oriented.
Afrin Mukti

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY