স্বপ্ন কে বাস্তবায়ন করার বেসিক কিছু টিপস

0
1121
স্বপ্ন কে বাস্তবায়ন করার বেসিক কিছু টিপস
5 (100%) 2 votes

আপনার হয়তো প্লেন উড়ানোর অথবা আমেরিকান বিখ্যাত উপন্যাস লেখার স্বপ্ন থাকতে পারে, আর সেই স্বপ্ন পূরণ করার জন্য কিছু নির্দিষ্ট উপায় অবলম্বন করা জরুরি। আর এর জন্য আপনার ফোকাস সংকীর্ণ করতে হবে, নেতিবাচক চিন্তা বাদ দিতে হবে এবং প্রেরণা যোগিয়ে সেটা চলমান রাখতে হবে। আপনার স্বপ্ন পূরণের জন্য ধাপ গুলো জেনে নিন-

ধাপ ১> ভিত্তি প্রস্তুত করুন

নতুন কিছু করার চেষ্টা করুন

try something new
আপনি হয়তো জানেন না আপনার স্বপ্ন কি, এমনকি আপনার স্বপ্ন গুলো অস্পষ্ট এবং অবাস্তব হতে পারে। সে সময় আপনি কি পছন্দ করেন তা জানার দুর্দান্ত একটি উপায় হল নতুন নতুন জিনিস চেষ্টা করা। এটি আপনার স্বপ্ন পূরনের জন্য নতুন নতুন আইডিয়ার সাথে পরিচিত হতে সহায়তা করবে। এমন কিছু করুন যা আপনি সাধারনত করেন না। আপনার কি রোজ বিকেল বই পরে পার করে দেন। তাহলে আজ সেটি না করে নতুন কোন যায়গায় ভ্রমনের জন্য বের হন, আপনি যত নতুন কিছু চেষ্টা করবেন ততই নতুন কিছু শিখতে পারবেন। আপনি নতুন নতুন জিনিস সম্পর্কে ভাল ধারণা পেতে পারেন যদি কোন প্রতিষ্ঠানে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করতে আগ্রহী হন কারন স্বেচ্ছাসেবক এমন একটি দুর্দান্ত উপায় যেখানে আপনি অত্যধিক প্রত্যাশা ছাড়াই অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারেন।

গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিন

এটা বলা কঠিন যে কিভাবে আপনি আপনার লক্ষ্যে পৌছাবেন যদি আপনি পুরোপুরি নিশ্চিত না হন যে সামনে কি ঘটতে যাচ্ছে। আপনি ভাবুন আপনি কি করতে ভালোবাসেন, কোন বিষয়টি আপনাকে উৎসাহিত এবং প্রনবন্ত করে। চিন্তা করুন কি ভাবে আপনি আপনার অনুভুতি গুলো পরিপূর্ন করবেন। এটি কী দর্শক দের সামনে গান গাওয়া? বা এটা কি লোকসঙ্গীতের গবেষণা করা ? আর যদি কোন বাধা বা ব্যর্থতার সম্ভাবনা থাকে তবে কি আপনি এই কাজ করতে চান?
এই ধারনা গুলো বিবেচনা করার জন্য স্থান তৈরি করুন। আপনি জিনিসগুলো অন্য মানুষদের সাথে করার চেষ্টা করুন এবং তদের মতামত জানুন তবেই আপনি আনন্দ পেতে পারেন। নিজে নিজে কাজ করার চেষ্টা করুন যাতে করে আপনি পুরোপুরি কিছু অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারেন এবং নিজেই সিদ্ধান্ত নিন সেগুলো আপনার স্বপ্ন পূরনের জন্য মানানসই কি না।

আপনার ফোকাস সঙ্কীর্ণ করুন

আপনি কি করতে চান তা সম্পর্কে বড় এবং স্পষ্ট ধারনা রাখুন। এটা করার এখনি সময় যেন আপনি আপনার ফোকাস সংকীর্ণ করে আপনার লক্ষ্যে পৌছাতে পারেন। আপনার স্বপ্ন অর্জন করার জন্য নিজেকে আরও স্পেসিফিক করুন এবং লক্ষ্য নির্ধারণ করুন। ধরুন আপনার স্বপ্ন পুরনের কিছু রাস্তা আছে যা আপনি জানেন না। উদাহরণস্বরূপ, আপনার স্বপ্ন যদি হয় গান করা তবে আজ ই আপনি আপনার সঙ্গীত চর্চা শুরু করুন। কালকের জন্য ফেলে রাখবেন না কোন কাজ। একটি জবের মধ্যমে আপনি আপনার স্বপ্ন যথাযত ভাবে পূরন করতে পারবেন না। আপনি জবের বাইরে কিছু করে আপনার স্বপ্ন পুরন করতে পারেন (উদাহরণস্বরূপ, একটি পরিবেশ সংরক্ষণ দলের জন্য স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করতে পারেন)। আপনার স্বপ্ন হতে পারে প্রতিটি মহাদেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গে আরোহণ করা। তবে সব শেষে বলা যায়, অধিকাংশ মানুষ শুধু এক স্বপ্নের জন্য স্থায়ীভাবে স্থির থাকেনা, তারা একাধিক স্বপ্ন পূরণের জন্য কাজ করে।

গবেষণা করুন

Research
আপনি একবার নয় একাধিক বার চিন্তা করুন, আপনার স্বপ্ন কি আর এটি আপনি কিভাবে সাধন করতে চান। এখনি খোঁজা শুরু করেন আপনি কিভাবে আপনার সপ্ন সাধন করতে পারবেন। আপনি যদি গবেষণা না করেই স্বপ্ন পূরণে নেমে যান আর যদি ফেইল করেন তারপর আপনি আপনার সমস্ত প্রেরনা হারিয়ে ফেলবেন এবং আর কখনোই সফল হতে পারবেন না। তাদের সাথে কথা বলুন যারা এমন জিনিস অর্জন করেছে যা আপনি ও করতে চান। উদাহরণস্বরূপ, যারা মহাদেশের সর্বোচ্চ পর্বত আরোহণ করেছে, তাদের আত্মজীবনী বা তাদের নিয়ে লেখা বা পত্রিকা পড়তে পারেন যে কিভাবে তারা পাহাড়ে আরোহন করেছেন। আপনি যদি তাদের মধ্যে কার সাথে যোগা্যোগ করতে পারেন তারা কিছু টিপস দিতে পারে যে কিভাবে আপনি আপনার সাফল্যের দারপ্রান্তে পৌছাতে পারেন। আপনার স্বপ্ন পুরনের জন্য কি করা দরকার সেটা ভাবুন। যদি আপনার স্বপ্ন হয় মেরাথনে যাওয়ার তাহলে আপনি খুজে বের করুন কি ধরনের প্রশিক্ষন আপনার জন্য দরকার এবং কতটা কম সময়ে আপনি সেটা অর্জন করতে। কখনো নিরুৎসাহিত হবেন না, যদি আপনার যদি মনে হয় যে, আপনার লক্ষ্য অর্জনের জন্য আপনাকে কঠিন কাজ করতে হচ্ছে, তার মানে এই নয় যে, তা সম্ভব নয় কারন যদি আপনি শুরুতে নিরুৎসাহিত হয়ে যান তাহলে আপনি কখনো এটি অর্জন করতে পারবেন না। অধিকাংশ মানুষ তাদের লক্ষ্য অর্জন করতে পারেনা কারণ তারা তাদের শুধু টাকা বা সময় নিয়ে চিন্তা করতে থাকে।

লক্ষ্য নির্ধারন করুন

আপনার স্বপ্ন নিয়ে নিশ্চিত হওয়ার পর সেই স্বপ্ন পুরনের জন্য কি কি প্রয়োজন হতে পারে, এবং নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌছানোর জন্য কি কি দরকার তার একটি টাইম ফ্রেম তৈরী করুন যা আপনাকে সঠিক পথে রাখতে সাহায্য করবে। এর অর্থ এই নয় যে সেগুলো পরিবর্তন হবে না। এটি আপনাকে ধারনা দিবে যে আপনার কি ধরনের কাজের দরকার, কতটুক অর্থ প্রয়োজন পড়বে এবং কত সময় আপনার ব্যয় করতে হবে। লক্ষ্য অর্জনের জন্য ছোট বা বড় উভয় লক্ষ্যের ই একটি তালকা তৈরী করুন।

ধাপ ২> পজেটিভ থাকুন

নেতিবাচক চিন্তা বাদ দিন

delete negetiveness
নেতিবাচক চিন্তা থেকে বিরত থাকুন। কারন নেতিবাচক চিন্তা আপনার স্বপ্ন পূরনের লক্ষ্য কে বাধাগ্রস্থ করে। আপনার নিজের ই যদি মনে হয় যে আপনি পারবেন না তাহলে সত্যি ই আপনি পারবেন না। আপনাকে ভাবতে হবে যে, এই সময়ের মধ্যে আমি কাজটি করবো। যদি হয় ভালো আর যদি না হয় তার মানে এই নয় যে আমি ফেইলার। কখনো কারো সাথে নিজেকে তুলনা করবেন না। আপনি হয়তো ভাবছেন যে, সে তো সাকসেস হয়ে গেলো আমি পারলাম না। কিন্তু আপনি কি জানেন উনিও আপনার মতই এই পথ দিয়ে গিয়ে সাকসেস হয়েছে। তাই কখনোই নিজেকে নিয়ে নেতিবাচক ধারনা পোষণ করবেন না।

শিখতে থাকুন

শেখার কোন শেষ নেই। এই কথা টি মনে রাখবেন। কারন যত আপনি শিখবেন ততই আপনি সকল বাধা পেরিয়ে আসতে পারবেন। শুধু স্কুল বা কলেজ থেকে অথবা বই পড়েই যে শিখবেন তা কিন্তু ঠিক নয়। আপনি যে কোন কিছু থেকে শিখতে পারেন। অনলাইনে বিভিন্ন কোর্স করা যায় ফ্রী তে। সেখান থেকে শিখার চেষ্টা করুন। বিভিন্ন লাইব্রেরী বা মিউজিয়াম থেকে ও অনেক কিছু শিখতে পারেন।

নিজের ভুল থেকে শিখুন

হ্যা! আমরা মানুষ তো নিজের ভুল স্বীকার ই করতে চাই না। আবার ভুল থেকে শিখবো এটা কি করে হয়? কিন্তু নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে আপনার ভুল থেকে শিখতে হবে। ভুল হওয়ার পর চিন্তা করুন যে এটা কেন হল এবং এইবার এটা আপনি আগে থেকেই এড়িয়ে যাবেন। তাহলেই দেখবেন আপনার আর ভুল হচ্ছে না। আর যদি আপনি ভুল থেকে না শিখেন তাহলে সেই ভুল টা আবারো করবেন। আর তাই হতে থাকলে সফলতা খুব দূরের কথা।

কঠোর পরিশ্রম করুন

Hard work
আমরা জানি, পরিশ্রম ই সৌভাগ্যের প্রসূতি। আপনাকে বুঝতে হবে যে, আপনার স্বপ্ন নিজে নিজেই পূরণ হবে না, আপনাকেই আপনার স্বপ্ন পূরণের জন্য কাজ করতে হবে। মনে রাখবেন, এই পৃথিবীতে যারা সফল হয়েছে তারা সবাই কঠোর পরিশ্রম করেছে। তারা তাদের জীবন থেকে ঘন্টার পর ঘন্টা পার করেছে সফলতার জন্য। তবে যদি আপনার মনে হয় যে আপনি যা করছেন তা আপনি ইঞ্জয় করছেন না, তাহলে থামুন এবং নিজেকে প্রশ্ন করুন যে এটি ই কি আপনার শ্রেষ্ঠ স্বপ্ন। উত্তর হ্যা হলে কাজ করুন আর যদি না হয় তাহলে বুঝে নিন যে এই স্বপ্ন টি আপনার জন্য নয়। নতুন কোন স্বপ্ন নিয়ে ভাবুন।

সাহায্য নিন

এটা সত্যি যে, নিজের কাজ নিজেকেই করতে হয়। কিন্তু কোন লক্ষ্যে পৌছাতে হলে অবশ্যই কারো না কারোর সাহায্য প্রয়োজন পড়ে। তারা সবসময় আপনাকে তাদের বিভিন্ন আইডিয়া বা প্রাকটিস আপনার সাথে শেয়ার করবে এবং আপনাকে অনুপ্রেরনা যোগাবে। তাই যখন আপনি কিছু অর্জন করার চেষ্টা করবেন তখন অবশ্যই এমন কারো কাছ থেকে সাহায্য নেয়ার চেষ্টা করবেন। তাদের কাছে আপনার কাজের ব্যপারে এবং তাদের মতে আপনার উইকনেস গুলো জানার চেষ্টা করবেন। তাদের কাছ থেকে সাকসেস হবার টিপস সংগ্রহ করতে ভুলবেন না যেন।

ধাপ ৩> স্বপ্ন বাস্তবায়ন করুন

অন্যদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

be concted
যারা তাদের স্বপ্নপূরণ করতে সক্ষম হয়েছে তাদের মনের ভিত্তি খুব ই শক্তিশালী। আর তাই আপনি যাদের থেকে সাহায্য চাইবেন তারা ইতিবাচক মনের মানুষ হতে হবে এবং তারা সবসময় আপনাকে উৎসাহ দিবে এবং মেন্টর এর মত গাইড করবে। তাই তাদের সাথে কানেক্টেড থাকা জরুরি। নেটওয়ার্কিং খুব বড় একটি জিনিষ। এটি আপনাকে আপনার জীবনের পদে পদে সহায়তা করবে। প্রত্যেক মুহুর্তে চেষ্টা করবেন মানুষের সাথে যোগাযোগ করার। আপনার নেটওয়ার্কিং যত বেশি থাকবে ততই আপনার সুবিধা হবে। আপনি নিজেও বুঝবেন না যে আপনার পরিচিত লোকটি কখন আপনার কাজে লেগে গেছে।

বাধা অতিক্রম করুণ

এই পৃথিবীতে এমন কেউ নেই যে কিনা কোন বাধা ছাড়াই তার স্বপ্ন পূরণ করে ফেলেছে। আপনি যদি এটা মেনে নিয়ে নিজেকে পস্তুত রাখতে পারেন তাহলেই আপনি সফল হবেন। যেমন, প্রথম বাধা হল সব কিছু পারফেক্টলি করার চ্যালেঞ্জ। আরেকটি হতে পারে ভয়। ফেইল হওয়ার ভয়। এগুলো থেকে বেড়িয়ে আসতে হবে। আপনার ভয় গুলো কি এবং কিভাবে এর থেকে বেরোবেন নিজেকেই প্রশ্ন করুন। ভয় গুলো অতিক্রম করতে পারলেই সফলতা পাবেন।

বাস্তববাদী হোন

কখনো আকাশ-কুসুম চিন্তা করবেন না। যদি বাস্তব জিনিষটি নেগেটিভ হয় তাহলে তাই মেনে নিন। নেগেটিভ কিছু মেনে নেয়া মানে এই নয় যে আপনি স্বপ্ন পূরণ করতে পারবেন না। আপনাকে সেটা মেনে নিয়ে সেটাকে পজেটিভ বানাতে হবে।

মোটিভেশন

আপনাকে সব সময় মোটিভেটেড থাকতে হবে। মোটিভেশন না থাকলে কখনো সফল হতে পারবেন না। মোটিভেশন হারানো খুব সহজ। তাই এখানেই আপনাকে মোটিভেশন শক্তভাবে ধরে রাখতে হবে।

ঝুঁকি নিন

ঝুঁকি এমন একটা জিনিষ যা না নিতে পারলে আপনি কাজে সফল হওয়া তো দুরের কথা কাজ ই শুরু করতে পারবেন না। কি হবে, কিভাবে হবে ,পারব কিনা এগুলো নিয়ে ভাবলে আপনার স্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে যাবে। বাস্তবে কখনো পরিনত হবে না। কঠোর পরিশ্রম, পরিকল্পনা নিয়ে নেমে পড়ুন। পূরণ হবে কি হবে না সেটা এখন ভাব্বেন না। আগে কাজ শুরু করুন।

সর্বশেষে, মনে রাখবেন আপনার স্বপ্ন শুধুই আপনার। কে কি বলছে তা নিয়ে মাথা ঘামাবেন না। এছাড়াও কারো কথার উপর ভিত্তি করে আপনার স্বপ্ন পরিবর্তন করার চেষ্টা করবেন না কারন আপনি জানেন যে কি করলে আপনি খুশি হবেন। তাই চালিয়ে যান। সফলতা আসবেই।

dont change goal

Zannatul Ferdous

Zannatul Ferdous

Zannatul Ferdous is a veryfriendly person.She completed her study from University of South Asia in computer science and information technology. She likes to watch cartoon and listening songs. She love to hangout with friends.
Zannatul Ferdous

Comments

লেখাটি পড়ে কেমন লাগলো ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY